Home আর্কাইভ মংলায় রমজানের শুরুতেই সবজির দাম চড়া

মংলায় রমজানের শুরুতেই সবজির দাম চড়া

mogla
Staff Reporter (U)

Published: 19:10:58
34
0

image_pdfimage_print
মাহমুদ হাসান,মংলা প্রতিনিধি: সংযমের মাসে পবিত্র রমজান শুরুর প্রথম থেকেই অসংযতভাবে বেড়েছে সবজিসহ নিত্যপণ্যের দাম। রমজানের তৃতীয় দিন আজ রোববার সকালে মংলা পাইকারী বাজার গুরে দেখা গেছে মালামালের দাম আগের তুলনায় বেড়ে গেছে প্রায় দেড়গুন। ক্রেতাদের জন্য অস্বস্তিকর হয়ে ওঠেছে বন্দর নগরী নিত্যপণ্যের বাজার।

বাজারে বেগুন, কাঁচামরিচ, শসা, টমেটোসহ রমজানে অধিক প্রয়োজনীয় সব পণ্যের দামই বেড়েছে প্রায় দেড়গুন হারে। শহরের অধিকাংশ কাঁচাবাজারে গড়ে প্রতি কেজি সবজিতে ১০ থেকে ২০ টাকা বেড়েছে। তবে অতিরিক্ত দাম বেড়েছে বেগুনে। রমজান মাস শুরু হওয়ার সাথে সাথে বেগুনের দাম কেজি প্রতি বেড়েছে ২০ টাকা। রোববার মংলার দিগরাজ বাজার, চিলা বাজার, বৈদ্যমারী,জয়মনি,চটেরহাট, মোল্লারহাট,কচুবুনিয়া বাজার, জিউধারা বাজার, রামপালে পেড়ীখালী বাজার, মিঠাখলী ও মংলা কাঁচাবাজার ঘুরে এমন চিত্র দেখা গেছে। কাঁচাবাজার গিয়ে কথা হয় ক্রেতা ব্যাবসায়ী সোলাইমানের সঙ্গে। তিনি বলেন, রোজা আসায় প্রায় সব ধরনের পণ্যেই গড়ে কেজিতে দাম বেড়েছে দশ টাকা থেকে ২০ টাকা পর্যন্ত। রমজানে ভেজাল ও দাম নিয়ন্ত্রণে সরকারের হস্তক্ষেপ দরকার। বাজারে গিয়ে দেখা গেছে, চাহিদা একটু বেশি থাকায় ৬০ টাকা কেজির বেগুন বিক্রি হচ্ছে ৮০ টাকায়। প্রতি কেজি শসা ৬০, টমেটো ৭০, ভেন্ডি ৩০, পটল ৬০, বরবটি ৬০ থেকে ৭০ এবং কাকরল বিক্রি হচ্ছে ৮০ টাকা। কাঁচামরিচ বিক্রি হচ্ছে ৭০ টাকা, পেঁপে ৭০ টাকা, করলা ৪০ টাকা, গাজর ৭০ থেকে ৮০ টাকা, আলু ১৮/২০ টাকা, প্রতি পিস বাঁধাকপি ৪০ টাকা, পেঁয়াজ পাতা এক আঁটি ৩০ টাকা করে বিক্রি হচ্ছে। ধনিয়াপাতা ১৫০ টাকা কেজি, কাচা কলা হালি ৩০ থেকে ৩৫ টাকা, লাউ প্রতিপিস ৫০/৭০ টাকা, এছাড়া কচুর ছড়া ৪০ টাকা, লেবু হালি বড় ২৫ টাকা। বুট কেজি ৮০ টাকা, ইসব গুলের ভুষি ৪০০ টাকা কেজি। এদিকে কেজিতে ১০০ থেকে ১২০ টাকা বেড়ে ২২০ থেকে ২৪০ টাকার রুই মাছ বিক্রি হচ্ছে ৩৫০ টাকায়। আর কাতল বিক্রি হচ্ছে বড় ৪০০ টাকা কেজি। চিংড়ী মাছ একসপ্তাহ আগে যা ছিল ২০০ তেকে ২২০ টাকা তা এখন ৩৮০ থেকে ৪০০টাকা দরে বিক্রি হচ্ছে।

এখানকার সল্প আয়ের মানুষের জন্য কম দামে পাওয়া যাচ্ছে পাঙ্গাস মাছ ও ব্রলার মুরগী। তাও পাঙ্গাস মাছের দাম বেড়েছে ১০ থেকে ১৫ টাকা প্রতি কেজিতে আর ব্রলার মুরগী রমজানের শুরু থেকে বাজারে পাওয়াও যাচ্ছে না। এ চাড়া মাংশ বাজারে মাংস বিক্রিতেও মানা হচ্ছে না মূল্য তালিকা। সরকার রোজা উপলক্ষে গরুর মাংসের দর প্রতি কেজি ৪৫০ টাকা ও খাশীর দাম ৬শ টাকা নির্ধারণ করলেও খুচরা বিক্রেতারা মাংস বিক্রি করছেন গরু ৫০০ আর খাশী ৭০০ টাকা দরে। যা কয়েক দিন আগের তুলনায় ৫০ টাকা বেশি। নিত্যপণ্যের দাম নিয়ন্ত্রণে উপজেলা প্রশাসন ও মংলা পোর্ট পৌরসভা ভ্রাম্যমাণ আদালতের হস্তক্ষেপ দাবি করেছেন ক্রেতারা।

আরও পড়ুন: শেরপুরে হুইপ আতিকের বিরুদ্ধে ঝাড়ু মিছিল ও কুশপত্তলিকা দাহ

Print Friendly, PDF & Email

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.