Home bd news বাংলাদেশ জেনারেল ইন্স্যুরেন্স-এ ‘কোম্পানি সেক্রেটারি’র দায়িত্বে ‘প্রধান নিবার্হী’

বাংলাদেশ জেনারেল ইন্স্যুরেন্স-এ ‘কোম্পানি সেক্রেটারি’র দায়িত্বে ‘প্রধান নিবার্হী’

কোম্পানি সেক্রেটারি
Senior Staff Reporter (SM)

Published: 14:53:54
101
0

image_pdfimage_print

নিজস্ব প্রতিবেদক: আমাদের দেশের ইন্স্যুরেন্স কোম্পানীগুলোর অনিয়ম আর অভিযোগের অন্ত নেই। গ্রাহকদের পাওনা পরিশোধে দীর্ঘসূ্ত্রিতা, অনেক ক্ষেত্রে টাকা না পাওয়ার অভিযোগসহ নানা রকম অভিযোগ করে থাকেন ভুক্তভোগীরা। কিন্তু গ্রাহকের অভিযোগ তথা অনিয়মের সাথে এবার যুক্ত হলো কর্তৃপক্ষের সরাসরি আইন অমান্য করার ঘটনা।

গত ১৫ই মে, ২০১৮ বাংলাদেশ জেনারেল ইন্স্যুরেন্স কোম্পানি লিমিটেড এর পরিচালনা পর্ষদের সভায় কোম্পানির প্রথম প্রান্তিকের অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদনের অনুমোদন দেওয়া হয় এবং এই প্রেক্ষিতে কোম্পানির প্রধান নির্বাহী কমকর্তা (সিইও) স্বাক্ষরিত একটি মূল্য সংবেদনশীল তথ্য (পিএসআই) ১৬ মে ২০১৮ একটি জাতীয় দৈনিক পত্রিকায় প্রকাশিত হয়। প্রকাশিত বিজ্ঞাপনের নীচে প্রেরকের নামের স্থানে কোম্পানির প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও) পদ ব্যবহার করার পাশাপাশি নিজেকে কোম্পানি সেক্রেটারি (সিএস) হিসেবেও উল্লেখ করেছেন।

BGIC

প্রশ্ন হলো-একটি তালিকাভূক্ত কোম্পানির প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও) একই সঙ্গে প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও) এবং কোম্পানি সেক্রেটারি (সিএস) পদে থাকতে পারেন কিনা?

দ্বিতীয়ত, বাংলাদেশ জেনারেল ইন্স্যুরেন্স কোম্পানি লিমিটেড এর পরিচালনা পর্ষদ কি কোম্পানি সেক্রেটারি নিয়োগ দেওয়ার মতো অবস্থায় নেই? নাকি স্বেচ্ছায় অথবা ইচ্ছাকৃতভাবে প্রতিষ্ঠানটি বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন (বিএসইসি) এর কর্পোরেট গাইড লাইন্স ও নির্দেশনা অমান্য করছে। 

২০১২ সালের ৭ই আগস্ট তৎকালীন সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন (এসইসি) কর্তৃক প্রণীত কর্পোরেট গভর্নেন্স গাইডলাইন যা, ৩০ আগস্ট ২০১২ গেজেট আকারে প্রকাশিত হয়। যেখানে ঐ গাইডলাইনের ২ নম্বর সেকশনে ২.১ সাব সেকশনে প্রধান অর্থ কর্মকর্তা (সিএফও), কোম্পানি সেক্রেটারি (সিএস) এবং হেড অফ ইন্টারনাল অডিট নিয়োগ বিষয়ে পরিষ্কার বলা আছে যে, “এই তিন জন কর্মকর্তা পৃথক ব্যক্তি হবেন এবং তাদের কাজের পরিধি ও দায়িত্ব কর্তব্য পরিচালনা পর্ষদ অবশ্যই আলাদা করে দিবে। কোন ব্যক্তি একই সঙ্গে একাধিক পদে থাকতে পারবেন না।” আবার সাব সেকশন ২.২ তে পরিষ্কার বলা আছে যে, “মিটিংয়ে উপস্থিতির ক্ষেত্রেও প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও), প্রধান অর্থ কর্মকর্তা (সিএফও) এবং কোম্পানি সেক্রেটারি (সিএস) তিন জনের উপস্থিত হওয়া বাধ্যতামূলক।”

অথচ বাংলাদেশ জেনারেল ইন্স্যুরেন্স কোম্পানি লিমিটেড এর প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও) আহমেদ সাইফু্দ্দিন চৌধুরী বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন (বিএসইসি) এর প্রবর্তিত আইনের কোন প্রকার তোয়াক্কা না করে এবং কর্পোরেট গর্ভন্যান্স গাইডলাইনকে আমলে না নিয়ে কোম্পানি সেক্রেটারির (সিএস) দায়িত্বও পালন করছেন।

এমন অনেক তালিকাভূক্ত কোম্পানি আমাদের শেয়ার মাকের্টে আছে, যারা একজন ব্যক্তিকে দিয়ে প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও) এবং কোম্পানি সেক্রেটারির (সিএস) কাজ চালাচ্ছেন। আবার প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও) এবং প্রধান অর্থ কর্মকর্তার (সিএফও) কাজ চালাচ্ছেন। প্রধান অর্থ কর্মকর্তা (সিএফও) এবং কোম্পানি সেক্রেটারি (সিএস) ২ জনের কাজ ১ জনকে দিয়ে চালিয়ে নিচ্ছেন।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে ইন্সটিটিউট অব সেক্রেটারিজ অব বাংলাদেশ (আইসিএসবি) এর প্রেসিডেন্ট এবং সিঙ্গার বাংলাদেশ লিমিটেড এর কোম্পানি সেক্রেটারি মোহাম্মদ সানাউল্লাহ এফসিএস বলেন, কোন আইনানুগ প্রতিষ্ঠান এমন কাজ করতে পারে না। কারণ, আইনে একজন ব্যক্তির এমন একাধিক দায়িত্ব পালন করার সুযোগ নেই। 

একজন প্রফেশনাল লোক নিলে তাদের খরচ বেশি হবে, কোম্পানির খরচ বাঁচানোর জন্য পরিচালনা পর্ষদ একজনকে দিয়েই সব জনের কাজ করাতে চান এবং তিনজনের বেতন একজনকে দিয়ে বছরে একজন প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তার (সিইও) পিছনেই কোটি টাকার বেশি সুযোগ সুবিধা দিয়ে চলেছেন। যাতে করে ঐ প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও) সাহেব পরিচালনা পর্ষদের কর্তা ব্যক্তিদেরকেও নামে-বেনামে, আড়ালে- আবডালে বিভিন্ন সুযোগ সুবিধা দিতে পারেন।

আর এ ব্যাপারে বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন (বিএসইসি) এর বিধি-বিধান আছে অফিসে কর্তা ব্যক্তিদেরও অভাব নেই। অথচ শেয়ার মার্কের্টে তালিকাভূক্ত কোম্পানির কর্তাব্যক্তিদের অনিয়ম থেকে নিয়মে বের করে আনা তথা তাদের প্রণীত কর্পোরেট গর্ভন্যান্স গাইডলাইন পরিপালন হচ্ছে কিনা, বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন এ (বিএসইসি) দেখারও কেউ নেই।

কর্পোরেট গর্ভন্যান্স গাইডলাইনের সেকশন ১ এর সাব সেকশন ১.৪ এ এক্ষেত্রে প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও) সাহেবের নিয়োগ, কর্মপরিধি এবং দায়-দায়িত্ব সম্পর্কে পরিষ্কারভাবে বলা থাকা সত্বেও প্রায়ই খবরের কাগজে দেখা যায় বাংলাদেশ জেনারেল ইন্স্যুরেন্স কোম্পানি লিমিটেড এর মতো অনেক তালিকাভূক্ত কোম্পানি বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন (বিএসইসি) এর কর্পোরেট গর্ভন্যান্স গাইডলাইন মানতে চায় না। তারা আইন ও বিধি-বিধানের তোয়াক্কা করেনা, নিজেদের পরিচালনা পর্ষদের প্রণীত বিধি-বিধানের আলোকে প্রতিষ্ঠান পরিচালনায় আগ্রহী। ফলে প্রায়ই দেখা যায় ঐ নাম সর্বস্ব কোম্পানিগুলো কোম্পানির শেয়ারহোল্ডারদেরকে বছরের পর বছর কোন লভ্যাংশ না দিয়েও নামমাত্র বার্ষিক সাধারণ সভা (এজিএম) করে প্রতি বছর বড় অংকের লোকসান শেয়ারহোল্ডারদের দিয়ে অনুমোদন করিয়ে নিচ্ছেন। আলোচিত বাংলাদেশ জেনারেল ইন্স্যুরেন্স কোম্পানি লিমিটেড এ ফোন করলে কর্পোরেট সংবাদ এর সাথে এ বিষয়ে কেউ-ই কথা বলতে রাজি হয়নি। এ বিষয়ে বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশনে (বিএসইসি) যোগাযোগ করা হলে কর্পোরেট সংবাদকে নাম প্রকাশ না করার শর্তে এক কর্মকর্তা জানান বিষয়টি তারা খতিয়ে দেখবেন।

সংযুক্ত মূল্য সংবেদনশীল তথ্যটিতে (পিএসআই) বাংলাদেশ জেনারেল ইন্স্যুরেন্স কোম্পানি লিমিটেড (বিজিআইসি) এর প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও) আহাম্মেদ সাইফুদ্দীন চৌধুরী মূল্য সংবেদন তথ্যটি (পিএসআই) কবে, কখন, কোথায় স্বাক্ষর করেছেন সেটি উল্লেখ নেই। অর্থাৎ, কোন প্রফেশনাল কর্মকর্তা এমন সাধারণ ভূল করতে পারে না। ফলে বাংলাদেশ জেনারেল ইন্স্যুরেন্স কোম্পানি লিমিটেড (বিজিআইসি) এর মতো যে সমস্ত কোম্পানি বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন (বিএসইসি) কর্তৃক ইস্যুকৃত কর্পোরেট গর্ভন্যান্স গাইডলাইন অনুস্বরণ না করে পরিচালিত হচ্ছে তাদের বিষয়ে ব্যবস্থা নেওয়া দরকার। বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন (বিএসইসি) কর্তৃক প্রণীত কর্পোরেট গর্ভন্যান্স গাইডলাইন ২০১২ ও বাংলাদেশে চলমান কর্পোরেট কমপ্লাইন্স ইস্যু বর্তমানে খুবই খারাপ সময় পার করছে সে কারনে স্পর্শকাতর এ বিষয়টিতে আশু ব্যবস্থা নেওয়া জরুরি বলে মনে করেন শেয়ার মার্কেট বিশ্লেষকরা।

‘বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন (বিএসইসি)’ যে প্রতিষ্ঠানের কাজ হলো কর্পোরেট সেক্টর তথা শেয়ার মার্কেট রিলেটেড কোম্পানি, প্রতিষ্ঠান, মার্কেট ও কর্পোরেট প্রফেশলানদের পরিচালনা ও দিক নির্দেশনা সংক্রান্ত নীতি নির্ধারণ ও গৃহীত বিধি বিধান অনুযায়ী শেয়ার মার্কেট সম্পৃক্ত কোম্পানিসমূহ, ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই), চট্রগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জ (সিএসই) শেয়ার ডিলার হাউজ, শেয়ার বোকারেজ হাউজ, সিকিউরিটিজ হাউজগুলোতে কর্পোরেট গুড গভর্নেন্স প্রতিষ্ঠা ও নিয়ন্ত্রন করা। 

বাংলাদেশ জেনারেল ইনসিওরেন্স কোং লিঃ এর প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তার কোম্পানি সেক্রেটারির দায়িত্ব পালনে বিষয়ে বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন (বিএসইসি) এর নির্বাহী পরিচালক মো: সাইফুর রহমান কর্পোরেট সংবাদকে বলেন, আইন থাকলেও অনেক কোম্পানি আইন মানতে চায় না।  তারপর বিষয়টি দেখে ব্যবস্থা নেয়ার কথা বলেন তিনি।

এ বিষয়ে বীমা উন্নয়ন ও নিয়ন্ত্রণকারী প্রতিষ্ঠানের সদস্য বোরহান উদ্দিন আহমেদ বলেন, আইন অমান্য করা কোন প্রতিষ্ঠানেরই কাম্য নয়। 

এ বিষয়ে বাংলাদেশ জেনারেল ইনসিওরেন্স কোং লিঃ এর প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তার একাধিকবার যোগাযোগ করা হলেও মন্তব্য জানা সম্ভব হয়নি। গত ১৮ মে তাঁর প্রাইভেট সেক্রেটারি মাহবুবা আজ (২০ মে) ফোন করার কথা বললেও আজকে (২০ মে) একাধিকবার ফোন করলেও আহমেদ সাইফুদ্দিন চৌধুরীর সাথে কথা বলা সম্ভব হয়নি। 

Print Friendly, PDF & Email

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.