Home আর্কাইভ একাডেমি কাপ ক্রিকেট নিয়ে উচ্ছ্বসিত মাশরাফি

একাডেমি কাপ ক্রিকেট নিয়ে উচ্ছ্বসিত মাশরাফি

উচ্ছ্বসিত মাশরাফি
Staff Reporter

Published: 13:27:26
35
0

image_pdfimage_print
 স্পোর্টস ডেস্ক: ঢাকা তো বটেই, দেশের আনাচে-কানাচে এখন অসংখ্য ক্রিকেট কোচিং একাডেমি। এসব একাডেমি থেকে অনেক প্রতিভাবান ক্রিকেটার উঠে আসে। কিন্তু একাডেমির ক্রিকেটাররা প্রতিযোগিতামূলক ম্যাচ খেলার সুযোগ কমই পায়। অবশেষে এসে গেল সুযোগ। ঢাকার ৩২টি একাডেমির ১৫-১৮ বছর বয়সী ক্রিকেটারদের নিয়ে আজ শুরু হচ্ছে বিসিবি একাডেমি কাপ। মিরপুর সিটি ক্লাব মাঠে আজ অঙ্কুর ক্রিকেট একাডেমি ও ক্লেমন ইন্দিরা রোড ক্রিকেট একাডেমির ম্যাচ দিয়ে মাঠে গড়াবে নকআউট ভিত্তিক টুর্নামেন্ট।
গতকাল বিকালে বিসিবির একাডেমি ভবনের সামনে বাংলাদেশ ওয়ানডে দলের অধিনায়ক মাশরাফি বিন মর্তুজা টুর্নামেন্টে অংশ নেয়া ৩২ দলের অধিনায়ককে সঙ্গে নিয়ে টুর্নামেন্টের শিরোপা উন্মোচন করেন। সেখানে টুর্নামেন্ট প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘দেশের ক্রিকেট উন্নয়নে কিশোর ক্রিকেটারদের মধ্য থেকে ভালো মানের ক্রিকেটার বের করা আনা খুব গুরুত্বপূর্ণ। এজন্য বিসিবির গেম ডেভেলপমেন্ট বিভাগ দেরিতে হলেও এ টুর্নামেন্টের মাধ্যমে যে কাজটা শুরু করেছে, সেজন্য তাদের ধন্যবাদ। আমার মনে হয়, এ টুর্নামেন্টের মাধ্যমে কিশোর ক্রিকেটারদের মধ্যে ভালো খেলার মানসিকতা তৈরি করবে। যা দেশের ক্রিকেট উন্নয়নে গুরুত্বপূর্ণ ধাপ হিসেবে কাজ করবে।’

মাশরাফি নিজের ক্রিকেটের সূচনালগ্নের কথা স্মরণ করে বলেন, ‘আমি ক্রিকেট খেলা শুরু করি নড়াইলে। তখন নড়াইলে তো নয়ই, ঢাকায়ও খুব একটা ক্রিকেট ক্লাব কিংবা ক্রিকেট একাডেমি গড়ে ওঠেনি। তবে দেশের ক্রিকেট প্রসারের সঙ্গে সঙ্গে ঢাকায় এখন অসংখ্য ক্রিকেট কোচিং ক্লাব কিংবা একাডেমি বেড়েছে; যা দেশের ক্রিকেট উন্নয়নের জন্য ইতিবাচক। সত্যি বলতে ঢাকা লিগে যেসব কিশোর ক্রিকেটার অংশ নিতে পারে না, তাদের জন্য বড় সুযোগ এ টুর্নামেন্ট। তারা যদি এখানে ভালো করে, তবে ভবিষ্যতে ঢাকার বিভিন্ন ক্লাব, বিসিবির বিভিন্ন বয়সভিত্তিক দলেও সুযোগ পাওয়ার সম্ভাবনা তৈরি হবে। যত টুর্নামেন্ট হবে, যত খেলার সুযোগ থাকবে, ততোই ক্রিকেটার তৈরি হবে। আর ততোই দেশের ক্রিকেটের ভিত মজবুত হবে।’

টুর্নামেন্ট প্রসঙ্গে আয়োজক বিসিবির গেম ডেভেলপমেন্ট বিভাগের চেয়ারম্যান খালেদ মাহমুদ সুজন বলেন, ‘ঢাকার লিগে খেলতে পারে না, এমন কিশোর বয়সী ক্রিকেটারদের নিয়ে এ টুর্নামেন্টটি আসলে প্রতিভা অন্বেষণের জন্য পাইলট প্রকল্প। আমরা এ বছর ৩২টি দল নিয়ে টুর্নামেন্টের যাত্রা করছি। আগামীতে এ টুর্নামেন্টটি আরো বড় পরিসরে করা হবে। এখন ঢাকায় অনেক ক্রিকেট একাডেমি আছে। কিন্তু তাদের ম্যাচ খেলার জন্য তেমন কোনো প্রতিযোগিতামূলক টুর্নামেন্ট আয়োজন করতে পারছি না। তাছাড়া ঢাকায় খেলার জন্য মাঠ পাওয়াটাও খুব দুষ্কর। আগামীতে বেশকিছু মাঠ সংস্কার করে এ টুর্নামেন্টের আয়োজন করব, যেন নতুন ক্রিকেটারদের তৈরি হতে সুযোগ করে দিতে পারি ভালোভাবে।’

জাতীয় ক্রিকেট দলের সাবেক তারকা স্পিনার মোহাম্মদ রফিক বিসিবির একাডেমি কাপ নিয়ে ইতিবাচক কথা শোনালেন। তিনি বলেন, ‘ঢাকার ক্রিকেটে বিসিবি একাডেমি কাপ ক্রিকেটারদের জন্য নতুন দুয়ার। এ টুর্নামেন্টের মাধ্যমে যে কিশোর প্রতিভাধর ক্রিকেটার উঠে আসবে, তা ভবিষ্যতে বাংলাদেশের ক্রিকেটে খুব ভালো কাজে দেবে।’

আরও পড়ুনঃ এবার সালাহর বুট ব্রিটিশ জাদুঘরে

আইপিএলে অবমূল্যায়িত সাকিবের চমক!

Print Friendly, PDF & Email

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.