Home ব্যাংক-বীমা সুইস ব্যাংকের বড় অংকের মুনাফার প্রতিবেদন প্রকাশ

    সুইস ব্যাংকের বড় অংকের মুনাফার প্রতিবেদন প্রকাশ

    credit-suisse
    Staff reporter (s)

    Published: 11:30:41
    40
    0

    image_pdfimage_print

    কর্পোরেট সংবাদ ডেস্কঃ সুইস ব্যাংকিং জায়ান্ট ক্রেডিট সুইস গতকাল চলতি বছরের প্রথম প্রান্তিকে বড় অংকের নিট মুনাফার প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে। ব্যাংকটি ২০১৫ সাল থেকে সম্পূর্ণ ঢেলে সাজানোর যে উদ্যোগ নিয়েছিল, তার সুবাদেই এ মুনাফা অর্জিত হলো। খবর এএফপি।

    ইউবিএসের পর সুইজারল্যান্ডের দ্বিতীয় বৃহত্তম ব্যাংক ক্রেডিট সুইস মার্চেন্ট ব্যাংকিংয়ের পরিবর্তে সম্পদ ব্যবস্থাপনার ওপর আবারো অধিকতর নজর দেয়া শুরু করেছে।

    ফরাসি-আইভরিয়ান ব্যবসায়ী ও সাবেক রাজনীতিবিদ তিদিয়ান থিয়াম ২০১৫ সালে প্রতিষ্ঠানটিতে প্রধান নির্বাহীর দায়িত্ব নেয়ার পর ব্যাংকটির পুনর্গঠন কার্যক্রম শুরু করেন। এক বিবৃতিতে ক্রেডিট সুইস জানায়, পুনর্গঠনের আওতায় প্রতিষ্ঠানটি ‘দক্ষতার ওপর অবিরাম মনোযোগ’ দিচ্ছে।

    বিবৃতিতে বলা হয়, আমরা তিন বছরের কম সময়ের মধ্যে ক্রেডিট সুইস পুনর্গঠন করেছি। চলতি বছরের প্রথম তিন মাসে বছরওয়ারি মুনাফা ১৬ শতাংশ বেড়ে ৬৯ কোটি ৪০ লাখ সুইস ফ্রাঁতে (৭০ কোটি ৬০ লাখ মার্কিন ডলার) পৌঁছেছে।

    ক্রেডিট সুইসের বিবৃতিটিতে উল্লেখ করা হয়, পাঁচ বছরে ত্রৈমাসিক ব্যয় সর্বনিম্ন পর্যায়ে নামিয়ে আনা হয়েছে। ব্যাংকটির আয়ের বেশির ভাগ অংশই এসেছে সম্পদ ব্যবস্থাপনা ও বিনিয়োগ ব্যাংকিং কার্যক্রম থেকে।

    এক বিবৃতিতে থিয়াম বলেন, আমরা পরিকল্পনা করেছিলাম, ২০১৮ সাল হবে আমাদের পারফরম্যান্সের গতি বৃদ্ধির বছর। এ ত্রৈমাসিক ফলাফলের মাধ্যমে আমরা আমাদের পুনর্গঠনের তৃতীয় ও শেষ বছরটা দারুণভাবে শুরু করেছি। এখন আমরা আমাদের নতুন ব্যবসা মডেল ও তা বাস্তবায়ন সক্ষমতা নিয়ে যে আত্মবিশ্বাস জন্মেছে, তাকে ভিত্তি করে ভবিষ্যতের দিকে তাকাব।

    ক্রেডিট সুইসের প্রতিবেদনটিকে বিনিয়োগকারীরাও স্বাগত জানিয়েছেন। গতকাল সকালে জুরিখ স্টক এক্সচেঞ্জে প্রতিষ্ঠাটির শেয়ারের দর ৪ দশমিক ৫ শতাংশ বৃদ্ধি পায়।

    ব্যাংকটির সম্পদ ব্যবস্থাপনা কার্যক্রম গত বছরের চেয়ে ২০ শতাংশ বেড়ে ১ হাজার ৪৪০ কোটি সুইস ফ্রাঁতে উন্নীত হয়েছে, যা ব্যাংকটির সাত বছরের মধ্যে সর্বোচ্চ ত্রৈমাসিক অর্জন।

    বিশেষত এশিয়া প্যাসিফিক অঞ্চলের সম্পদ ব্যবস্থাপনায় বেশ ভালো করেছে ব্যাংকটি। এ অঞ্চলের রাজস্ব ১২ শতাংশ বৃদ্ধি পেয়ে ৯৯ কোটি ১০ লাখ সুইস ফ্রাঁতে পৌঁছেছে।

    ক্রেডিট সুইস ভবিষ্যতের জন্যও একটি আশাবাদী বক্তব্য দিয়েছে। সেখানে বলা হয়, এশিয়া, যুক্তরাষ্ট্র ও ইউরোপজুড়ে বৈশ্বিক অর্থনীতি উৎসাহব্যঞ্জক প্রবৃদ্ধির সম্ভাবনা অব্যাহত রেখেছে।

    তবে একই সঙ্গে ব্যাংকটি জানিয়েছে, ভূরাজনৈতিক উত্তেজনা ও যুক্তরাষ্ট্র-চীনের বাণিজ্যযুদ্ধের হুমকিতে এর গ্রাহক কার্যক্রম ‘সংবেদনশীল’ মাত্রায় আছে।

    আরও পড়ুনঃ 

    ঋণের উপর কোন ব্যাংক কত % সুদ নিচ্ছে?

    Print Friendly, PDF & Email