Home সারাদেশ-টুকিটাকি কোটিপতি হওয়ার আগেই ধরা খেলেন ভাইবোন!

    কোটিপতি হওয়ার আগেই ধরা খেলেন ভাইবোন!

    কোটিপতি হওয়ার আগেই ধরা খেলেন ভাইবোন!
    Staff reporter (s)

    Published: 18:29:51
    93
    0

    image_pdfimage_print

    কর্পোরেট সংবাদ ডেস্কঃ ঘরে জাল টাকার কারখানা খুলে কোটিপতি হওয়ার অর্ধেক পথ পাড়ি দিতে না দিতেই ধরা খেলেন ভাইবোন। নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লায় ফ্ল্যাটে র‌্যাব অভিযান চালিয়ে ৪২ লাখ টাকার জাল নোটসহ জাল টাকা তৈরির সরঞ্জামস উত্থার বরে। এঘটনায় দুই ভাইবোনকে আটক করেছে র‌্যাব।

    মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ৭টা থেকে দুপুর পর্যন্ত ফতুল্লার দক্ষিণ সস্তাপুর বাইতুল মনির সড়কের খান মঞ্জিলের ষষ্ঠতলায় এ অভিযান চালানো হয়। নগদ টাকার পাশাপাশি ওই ফ্ল্যাট থেকে জাল টাকা তৈরির কাজে ব্যবহৃত ৫টি প্রিন্টার, একটি ল্যাপটপ, ১২টি ড্রাইপ্লেট, বিপুল পরিমাণ টাকা তৈরির কাগজ, টাকা প্রস্তুত করার কালি, কার্টিজ উদ্ধার করা হয়। গ্রেফতারকৃতরা হলেন, মামুন ইসলাম (২১) ও কমলা বেগম (২৫)। এদের দুজনেরই বাড়ি বাগেরহাট জেলায়। অভিযানের সময় এরা নিজেদের ভাইবোন পরিচয় দিয়েছে।

    বাড়িওয়ালা ফেরদৌস সরকার জানান, আমিসহ পরিবারে আমাদের আরেকটি বাড়িতে বসবাস করি। ষষ্ঠতলার এ বাড়িটি ভাড়া দেয়া। চার মাস আগে ষষ্ঠতলার ডান পাশের একটি ফ্ল্যাট ইউনুছ ফয়সাল নামে এক ব্যক্তি গেঞ্জি ব্যবসায়ী পরিচয় দিয়ে ভাড়া নেয়। ভাড়াটিয়া ফরম পূরণের মাধ্যমে তাদের ভাড়া দেয়া হয়েছে। র‌্যাব সেই ফ্ল্যাটেই অভিযান চালিয়ে দুইজনকে জাল টাকাসহ আটক করেছে।

    ফ্ল্যাটে র‌্যাবের উপস্থিতি টের পেয়ে এসময় জাল টাকা তৈরি চক্রের আরও কয়েকজন র‌্যাবের উপস্থিতি টের পেয়ে পালিয়ে গেছে।

    এ প্রসঙ্গে র‌্যাব-২ এর এএসপি শহিদুল ইসলাম জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে আমরা সকাল থেকে ষষ্ঠতলার ওই ফ্ল্যাটটিতে অভিযান শুরু করি। এ সময় জাল টাকা প্রিন্ট করার সময় হাতেনাতে দুজনকে আটক করি এবং ৪২ লাখ টাকার ৫০০ ও ১ হাজার টাকার জাল নোট উদ্ধার করি।

    তিনি জানান, এ কারখানায় জাল টাকা তৈরি করে দেশের বিভিন্ন জেলায় তা সরবরাহ করত।এই সংঘবদ্ধ চক্রের সঙ্গে জড়িতদের আটকের চেষ্টা চলছে।

    আরও পড়তে পারেনঃ 

    ঝিনাইদহে পৃথক সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ১, আহত ১৫

    Print Friendly, PDF & Email