Home bd news আনন্দ উদযাপনে শরিক হতে পারছেন না লাখো বিনিয়োগকারী

আনন্দ উদযাপনে শরিক হতে পারছেন না লাখো বিনিয়োগকারী

biniogkari
Senior Staff Reporter (SM)

Published: 10:27:44
41
0

শেয়ারবাজার ডেস্ক: পুঁজিবাজারে ‘প্যানিক সেল’ বাড়ছে। বিনিয়োগকারীরা আতঙ্কে শেয়ার বিক্রি করে বেরিয়ে যাচ্ছেন বাজার থেকে। জাতিসংঘের কমিটি ফর ডেভেলপমেন্ট পলিসি (সিপিডি) সম্প্রতি বাংলাদেশকে স্বল্পোন্নত দেশ থেকে উন্নয়নশীল দেশের কাতারে ওঠার যোগ্যতা অর্জনের স্বীকৃতি দিয়েছে। বাংলাদেশের এই অর্জনে আজ সারা দেশের মানুষ আনন্দ উদযাপন করলেও পুঁজিবাজারের লাখ লাখ বিনিয়োগকারী এতে শরিক হতে পারছেন না। তারা পুঁজি হারিয়ে রাস্তায় নেমে বিক্ষোভ মিছিল করছেন। কষ্টে অর্জিত অর্থ ভালো কোম্পানিতে বিনিয়োগের পরও চোখের সামনে পুঁজি হারিয়ে যেতে দেখছেন তারা। কিন্তু এ নিয়ে নিয়ন্ত্রক সংস্থার কোনো মাথাব্যথা নেই। বাজার ভালো করার কোনো উদ্যোগও দেখা যাচ্ছে না। অর্থনীতির একটি বড় খাত পুঁজিবাজারকে অবহেলা করে কীভাবে দেশকে উন্নয়নশীল করা যাবে, এ নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন বিনিয়োগকারীরা।

আরও পড়ুন, স্বল্পোন্নত থেকে উন্নয়নশীল দেশে উন্নীত হওয়ার যোগ্যতা অর্জনের আনন্দ উৎসব

গতকাল শেয়ার বিক্রির চাপে ডিএসইতে ৭৬ পয়েন্ট সূচক পতনের পাশাপাশি প্রায় ৮০ শতাংশ কোম্পানির দরপতন হয়। ব্যাংক ও টেলিযোগাযোগ খাতের পতন বাজারের পতনকে ত্বরান্বিত করে। গতকাল সব খাতেই বড় ধরনের পতন হয়েছে। ব্যাংক এবং ওষুধ ও রসায়ন খাতে ১৫ শতাংশ করে লেনদেন হয়েছে। ব্যাংক খাতের ২৮টি কোম্পানির দরপতন হয়। আইসিবি ইসলামী ব্যাংক ও রূপালী ব্যাংকের দর অপরিবর্তিত ছিল। ওষুধ ও রসায়ন খাতে ২৮ শতাংশ শেয়ারের দর বেড়েছে। এ খাতের স্কয়ার ফার্মা ও ওয়াটা কেমিক্যাল লেনদেনের শীর্ষ দশে অবস্থান করে। ওয়াটা কেমিক্যালের দর তিন টাকা বাড়লেও স্কয়ার ফার্মার দর ৮০ পয়সা কমেছে। টেলিযোগাযোগ খাতের গ্রামীণফোনের দর চার টাকা ৪০ পয়সা কমেছে। প্রকৌশল খাতে ১৪ শতাংশ লেনদেন হয়। এ খাতে মাত্র ১৩ শতাংশ শেয়ারদর বেড়েছে। এ খাতের ইফাদ অটোসের ১০ কোটি টাকার শেয়ার লেনদেন হয়। শেয়ারটির দর বেড়েছে ৪০ পয়সা। বস্ত্র খাতে লেনদেন হয় ১৩ শতাংশ। এ খাতের স্টাইল ক্রাফট, কুইন সাউথ, জাহিন স্পিনিং ও এইচআর টেক্স দরবৃদ্ধির শীর্ষ দশে উঠে আসে। এর মধ্যে কুইন সাউথের সাড়ে পাঁচ কোটি টাকার এবং আলিফ ইন্ডাস্ট্রিজের পাঁচ কোটি টাকার শেয়ার লেনদেন হয়। গতকাল বিদ্যুৎ ও জ্বালানি খাতে লেনদেন হয় ৯ শতাংশ। এ খাতের মাত্র তিনটি কোম্পানির দর ইতিবাচক ছিল। শাহজিবাজার দরবৃদ্ধিতে অষ্টম অবস্থানে উঠে আসে। আগের দিন মিউচুয়াল ফান্ড খাত ভালো অবস্থানে থাকলেও গতকাল মাত্র চারটি প্রতিষ্ঠানের দর বেড়েছে। গতকাল তুলনামূলকভাবে ভালো অবস্থানে ছিল বিমা খাত। এ খাতের ৩২ শতাংশ শেয়ারদর ইতিবাচক ছিল। দরবৃদ্ধির শীর্ষ দশে অবস্থান করে সেন্ট্রাল ইন্স্যুরেন্স, ইস্টার্ন ইন্স্যুরেন্স, পিপলস ইন্স্যুরেন্স ও স্ট্যান্ডার্ড ইন্স্যুরেন্স কোম্পানি। সূত্র: শেয়ার বিজ

আরও পড়ুন, উত্থানে সরব পতনে নীরব স্টক এক্সচেঞ্জ

আরও পড়ুন, গ্লাক্সো স্মিথক্লাইনের শেয়ার লেনদেন শুরু আজ

আরও পড়ুন, পর্ষদ সভার তারিখ ঘোষণা করেছে তাকাফুল ইন্স্যুরেন্স