Home bd news ৬ হাজার কর্মী ছাঁটাই করবে টেলিনর

৬ হাজার কর্মী ছাঁটাই করবে টেলিনর

telenor2
Staff Reporter (U)

Published: 12:35:51
54
0

image_pdfimage_print

বহুজাতিক টেলিযোগাযোগ কোম্পানি টেলিনর ছয় হাজার কর্মী ছাঁটাই করবে। আগামী তিন বছরে বৈশ্বিক কর্মীবাহিনী থেকে এ বিপুলসংখ্যক কর্মী ছাঁটাই করা হবে। ডিজিটালাইজেশনের মাধ্যমে স্বয়ংক্রিয় সেবা সরবরাহের কারণে কর্মীসংখ্যা কমানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে নরওয়েভিত্তিক প্রতিষ্ঠানটি। গত বুধবার টেলিনরের পক্ষ থেকে এমনটাই জানানো হয়। 

এশিয়া ও ইউরোপের ১২টি দেশে ১৭ কোটি ৮০ লাখের বেশি গ্রাহক রয়েছে টেলিনরের। বাংলাদেশসহ কয়েকটি গুরুত্বপূর্ণ টেলিকম বাজারে ভালো অবস্থানে থাকলেও ভারত এবং ইউরোপের কিছু বাজারে কয়েক বছর ধরে খারাপ সময় পার করছে প্রতিষ্ঠানটি।

২০১৭ সালে ২ হাজার ৬০০ কর্মী ছাঁটাই করেছে টেলিনর। ডিসেম্বর শেষে এর কর্মী সংখ্যা ছিল ২৯ হাজার ৭০০। গত বছর ১৬০ কোটি নরওয়েজিয়ান ক্রোনা (২০ কোটি ৮০ লাখ ডলার) ব্যয়সংকোচন করেছে প্রতিষ্ঠানটি। ব্যয়সংকোচনের ধারা অব্যাহত রাখতেই কর্মী ছাটাইয়ের পথে হাঁটছে অপারেটরটি।

টেলিনরের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও) সিগভে ব্রেক্কে এক বিবৃতিতে বলেন, ‘আমরা ২০১৮ সালে প্রবেশ করেছি ডিজিটাল রূপান্তরের এজেন্ডা বাস্তবায়নের স্পষ্ট লক্ষ্য নিয়ে। সামগ্রিক ব্যবসা কার্যক্রম ঘিরে দক্ষতা অর্জন এবং রাজস্ব প্রবৃদ্ধির জন্য নিরন্তর কাজ করছি। একই সঙ্গে আমাদের পোর্টফোলিও আরো সহজ করার পাশাপাশি ব্যবসা সম্প্রসারণের নতুন পন্থা খোঁজা হচ্ছে।’

টেলিনরের তথ্যমতে, ২০১৮-২০ সালের মধ্যবর্তী সময়ে বার্ষিক ১-৩ শতাংশ হারে ব্যয়সংকোচন করা হবে। এ সময়ে প্রতি বছর ব্যয়সংকোচন হবে ৪৫ কোটি থেকে ১৩৫ কোটি ক্রোনা এবং বছরে গড়ে প্রতিষ্ঠানটির দুই হাজার কর্মী চাকরি হারাবেন।

এদিকে টেলিনর ইউরোপের কয়েকটি বাজার থেকে ২০০ কোটি ইউরো মূল্যের সম্পদ বিক্রির পরিকল্পনা নিয়েছে। বুলগেরিয়া, সার্বিয়া, মন্টিনিগ্রো এবং হাঙ্গেরি থেকে এসব সম্পদ বিক্রি করা হতে পারে।

গত জানুয়ারিতে বুলগেরিয়ার ক্যাপিটাল লেটার এবং মার্জারমার্কেট নামে একটি সাইট প্রথম এ বিষয়ে প্রতিবেদন প্রকাশ করে। সেখানে নাম প্রকাশ না করে একটি সূত্রের উদ্ধৃতি দিয়ে বলা হয়, এ বিষয়ে তথ্যপ্রমাণ তাদের হাতে পৌঁছেছে। গত বছরের ডিসেম্বরে ক্রেতা প্রতিষ্ঠানটির সঙ্গে আলোচনায় বসেছিল টেলিনর। তবে এ বিষয়ে এখনো আনুষ্ঠানিক কোনো তথ্য প্রকাশ করা হয়নি।

টেলিযোগাযোগ খাতের গুরুত্বপূর্ণ বাজার ভারত থেকে এরই মধ্যে ব্যবসা গুটিয়ে নিয়েছে টেলিনর। গত বছর ফেব্রুয়ারিতে টেলিনর ইন্ডিয়ার লোকসানে থাকা ব্যবসা বিভাগ অধিগ্রহণে সম্মত হয় ভারতী এয়ারটেল। এতে টেলিনর ইন্ডিয়ার অতিরিক্ত স্পেকট্রাম দখলে পেয়েছে প্রতিষ্ঠানটি, যা ছিল এ অধিগ্রহণের অন্যতম কারণ। টেলিনর ইন্ডিয়া অধিগ্রহণের ফলে ১৮০০ মেগাহার্টজ ব্যান্ডের ৪৩.৪ মেগাহার্টজ তরঙ্গ দখলে পেয়েছে ভারতী এয়ারটেল। রয়টার্স 

Print Friendly, PDF & Email

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.