Home bd news হার্ডডিস্ক থেকে ডাটা উদ্ধার করবেন যেভাবে

হার্ডডিস্ক থেকে ডাটা উদ্ধার করবেন যেভাবে

Herdisk
Staff Reporter (U)

Published: 12:16:20
68
0

image_pdfimage_print

তথ্য প্রযুক্তি ডেস্ক: আপনি কি এটা জানেন, হার্ডডিস্ক ফরম্যাট করলে সংরক্ষিত তথ্য এলে মুছে যাবে না। বরং ফরম্যাট করা হার্ডডিস্ক ড্রাইভের তথ্য পুনরম্নদ্ধার করা যায় সহজেই। যখন কোনো ড্রাইভ ফরম্যাট করা হয়, তখন তা কেবল পুরাতন পার্টিশন মুছে ফেলে এবং তারপর নতুন একটি পার্টিশন সৃষ্টি হয়। অপারেটিং সিস্টেম দীর্ঘ সময় ড্রাইভের ডাটা পড়তে পারে না কিন্তু ডাটাগুলো আসলে বিদ্যমানই থাকে। তাই আপনার পুরনো কম্পিউটার বা হার্ডডিস্ক যখন অন্য কেউ কিনে ব্যবহার করবে, তখন সে কিন্তু ডাটা রিকভারি সফটওয়্যার করে আপনার ব্যক্তিগত তথ্য পেয়ে যাবে।

সুতরাং আপনি যদি কোনো কারণে হার্ডডিস্কের ডাটা সম্পূর্ণভাবে ধ্বংস করে ফেলার প্রয়োজন বোধ করেন কিংবা আপনার পুরনো কম্পিউটার বা হার্ডডিস্ক অন্যের কাছে বিক্রির ক্ষেত্রে, সব কিছু সম্পূর্ণভাবে মুছে ফেলাটা খুবই গুরম্নত্বপূর্ণ। সুতরাং কীভাবে তা করবেন তা জেনে নিন।

দারিক বুট অ্যান্ড নুক বা ডিবিএএন সফটওয়্যারটি সম্পর্কে অনেকেই হয়তো জানেন। এটি বিনামূল্যের একটি বুটেবল টুল, যা হার্ডডিস্কের ডাটা সম্পূর্ণভাবে মুছে ফেলার সুবিধা দেয়। ডিবিএএন একটি কমান্ড লাইন টুল অর্থাৎ লিখে নির্দেশ দেয়া লাগে কিন্তু এটি ব্যবহার করা খুবই সহজ। এটির কাজ হচ্ছে, হার্ডডিস্কের সব ডাটাগুলোকে অর্থশূন্য ডাটায় প্রতিস্থাপন করা। অর্থশূন্য ডাটায় পরিণত করে এটি পুরাতন ডাটাগুলোকে ধ্বংস করে দেয় এবং তা পুনরম্নদ্ধার করা প্রায় অসম্ভব।

ডিবিএএন ব্যবহারের বিভিন্ন উপায় রয়েছে তবে ‘অটোনুক’ উপায়টা সবচেয়ে সহজ। অটোনুক তিন ধাপে কাজ সম্পন্ন করে যার ফলাফল আপনার ডাটা ধ্বংস হয় ডিওডি মানসম্মতভাবে।

প্রথমে http://dban.org সাইট থেকে ডিবিএএন আইএসও ডাউনলোড করে নিন, এরপর বুটেবল পেনড্রাইভ তৈরি করম্নন। এবার এই ডিবিএএন পেনড্রাইভ দিয়ে কম্পিউটার বুট (অর্থাৎ কম্পিউটার রি-স্টার্ট দিয়ে কিবোর্ড থেকে এফ১২ বাটন চেপে বুটেবল ড্রাইভ সিলেক্ট) করম্নন। প্রধান প্রম্পটে autonuke কমান্ড দিয়ে এন্টার চাপুন। ডিবিএএন এরপর স্বয়ংক্রিয়ভাবে আপনার ড্রাইভ মোছা শুরম্ন করবে এবং তিনটি পাসে সম্পূর্ণ করবে অর্থাৎ আপনার ডাটা ওভাররাইট করে তিনবার অর্থশূন্য করে সম্পূর্ণভাবে মুছে দেবে।

আপনার হার্ডডিস্কের মেমোরির আকারের ওপর নির্ভর করে এই প্রক্রিয়া শেষ হতে কয়েক ঘণ্টা সময় লাগতে পারে, তাই রাতের বেলা সম্ভবত এই প্রক্রিয়া শুরম্ন করাটা আপনার জন্য ভালো হতে পারে। তিন ধাপের এই প্রক্রিয়া শেষ হওয়ার পর, আপনার ড্রাইভের ডাটা সম্পূর্ণভাবে মুছে যাবে এবং অপুনরুদ্ধারযোগ্য।

সফটওয়্যারের ব্যাপারে যদি আপনার ধারণা কম থাকে এবং আপনি যদি ডাটা ধ্বংসের প্রক্রিয়াটি সহজ স্বয়ংক্রিয় পদ্ধতিতে করতে চান তাহলে আপনার জন্য দারম্নণ সহায়ক হবে, হার্ডডিস্কের তথ্য মুছে ফেলার বিশেষ ডিভাইস (হার্ডডিস্ক ইরেজার)। তবে এসব ডিভাইস সস্ত্মা মূল্যের নয়, দাম প্রায় ২০০ ডলার। কিন্তু আপনার হার্ডডিস্কের সংখ্যা যদি বেশি হয়ে থাকে, তাহলে এই ডিভাইস খুবই দরকারি। হার্ডডিস্ক মুছে ফেলার ডিভাইসের ব্যবহার খুবই সহজ, কেবল ডিভাইসের মধ্যে হার্ডডিস্ক রেখে বাটন প্রেস করলেই, বাকি কাজ স্বয়ংক্রিয়ভাবে সম্পন্ন হবে।

আপনি যদি নতুন কম্পিউটার কেনার পর পুরনো কম্পিউটারটি হস্থান্তর করেন, তাহলে সহজেই পুরনো হার্ডডিস্কটি ধ্বংস করে দিতে পারেন। আপনি নিশ্চয় চান যে, হার্ডডিস্ক মেঝেতে আটকে যাক পেরেক দিয়ে। তাই কাঠের বস্নকের ওপর হার্ডডিস্ক রাখুন। এবার হার্ডডিস্কে প্রথম পেরেকটি নিয়ে (ছবিতে দেখানো লাল বৃত্তাকার অংশে) হাতুড়ি দিয়ে বাড়ি দিলে, তা শুধু যে হার্ডডিস্কের পেস্নটার ধ্বংস করবে তা নয়, বরঞ্চ রিড/রাইট হেডও ধ্বংস করবে। বাকি দুটো পেরেকও হার্ডডিস্কে রেখে (ছবিতে দেখানো হলুদ বৃত্তাকার অংশে) হাতুড়ি দিয়ে বাড়ি দিন। এর ফলে হার্ডডিস্কের পেস্নটার ধ্বংস হওয়াটা আরও বেশি নিশ্চিত হবে।

আপনার কাছে যদি পুরনো পিসি বিক্রির ক্ষেত্রে হার্ডডিস্ক ধ্বংস করাটা জরুরি হয়ে থাকে, তাহলে এই উপায় কাজে আসবে। বর্তমানে বাজারে হার্ডডিস্কের দাম খুব বেশি নয়, তাই পিসি বিক্রির ক্ষেত্রে নতুন একটি হার্ডডিস্ক কিনে লাগিয়ে দিতে পারেন।

Print Friendly, PDF & Email