হোম কর্পোরেট সংবাদ কর্পোরেট ইন্সটিটিউট ‘অর্থ আইন-২০১৭’ এর উপর আয়োজিত আইসিএসবি’র সিপিডি সেমিনার অনুষ্ঠিত

‘অর্থ আইন-২০১৭’ এর উপর আয়োজিত আইসিএসবি’র সিপিডি সেমিনার অনুষ্ঠিত

সংবাদটি প্রকাশিত হয়েছে : at 10:39 pm
1334
0
ICSB-0508

মাহমুদ:
আজ ৫ আগষ্ট শনিবার ঢাকার মতিঝিলে হোটেল পূর্বানীতে ইনস্টিটিউট অব চার্টার্ড সেক্রেটারিজ অব বাংলাদেশ (আইসিএসবি) এর পেশাগত উন্নয়ন উপ-কমিটির উদ্যোগে Continuing Professional Development (CPD) Program এর আওতায় “National Budget 2017-18 and Finance Act 2017” শীর্ষক এক সেমিনার অনুষ্ঠিত হয়েছে।

সেমিনারে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন অর্থ ও পরিকল্পনা প্রতিমন্ত্রী এম. এ. মান্নান এমপি। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের সদস্য (ভ্যাট পলিসি), ব্যারিষ্টার জাহাঙ্গীর হোসেন এবং সদস্য (ট্যাক্স পলিসি), পারভেজ ইকবাল। সেমিনারে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন সাধন চন্দ্র দাস এফসিএ, এফসিএস।

ICSB-Shadan
সেমিনারে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করছেন সাধন চন্দ্র দাস এফসিএ, এফসিএস
Spellbit Limited

সেমিনারে স্বাগত বক্তব্য রাখেন আইসিএসবি’র সাবেক প্রেসিডেন্ট এবং পেশাগত উন্নয়ন উপ-কমিটির চেয়ারম্যান মো. আসাদ উল্লাহ এফসিএস। তিনি আইসিএসবি’র সদস্যদের কর্মক্ষমতা ও যোগ্যতা বিষয়ে বলেন, বর্তমানে আইসিএসবি’র সদস্যরা দেশের অর্থনৈতিক উন্নয়নে নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছেন। তাঁরা দেশের শীর্ষ পর্যায়ের বিভিন্ন কোম্পানীতে গুরুত্বপূর্ণ এবং আয়কর ও ভ্যাট সংশ্লিষ্ট বিষয়ে তদারকির মাধ্যমে দেশের অর্থনীতিতে ভূমিকা রেখে চলেছেন। বাজেটের লক্ষ্যমাত্রা পূরণে সক্রিয়ভাবে কাজ করছেন। 

ICSB-Asad-Ullah
বক্তব্য রাখছেন আইসিএসবি’র সাবেক প্রেসিডেন্ট এবং পেশাগত উন্নয়ন উপ-কমিটির চেয়ারম্যান মো. আসাদ উল্লাহ এফসিএস

স্বাগত বক্তব্যের পর সেমিনারের মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন সাধন চন্দ্র দাস এফসিএ, এফসিএস। এ সময় তিনি চলতি বছরের পাশকৃত বাজেটের ট্যাক্স বিষয়ক বিভিন্ন দিক প্রবন্ধে তুলে ধরেন।

উত্থাপিত প্রবন্ধের উপর আলোচনায় অংশ নিয়ে প্রফেসর ড. ফিরোজ ফারুকী এফসিএস বলেন, বর্তমান বাজেট অনেক বড়। এই বিশাল অংকের বাজেট বাস্তবায়নই এখন বড় চ্যালেঞ্জ। এ সময় তিনি ভ্যাট স্থগিত প্রসঙ্গে বলেন, এক শতাংশ ভ্যাট কমানো মানে সরকারের আটশত কোটি টাকার রাজস্ব ক্ষতি। সেক্ষেত্রে তিন শতাংশ ভ্যাট প্রত্যাহার মানে রাজস্বের ক্ষতির পরিমাণ দুই হাজার চারশত কোটি টাকা।

আজিজুর রহমান এফসিএস আলোচনায় অংশ নিয়ে বলেন, সরকার দুই বছরের জন্য ভ্যাট আইন স্থগিত করেছে। এতে উপকৃত হয়েছে ব্যবসায়ীরা। সরকার হয়তো বা এখান থেকে শিক্ষা নিয়েছে যাতে করে আগামীতে নতুন কোন পদ্ধতি বাস্তবায়ন করা যায়। এ সময় তিনি চিকিৎসা সেবায় ভ্যাটের সম্পৃক্তায় অসন্তোষ প্রকাশ করে বলেন, চিকিৎসা নিতে যদি চিকিৎসা ব্যয়ের সাথে ভ্যাটও দিতে হয়, তবে সেটা হয় অমানবিক। বিদেশী বিনিয়োগের ক্ষেত্র সম্প্রসারণ প্রসঙ্গে বলেন, বিদেশী বিনিয়োগকারীদের ট্যাক্স দিতে হয় ৪৫ শতাংশ যা প্রতিবেশি দেশের তুলনায় বেশি। বিদেশী বিনিয়োগকারীদের এদেশে বিনিয়োগে আকৃষ্ট করতে হলে এর হার কমানো উচিত বলে তিনি মন্তব্য করেন।

আজিজুর রহমানের বক্তব্যের পর শুরু হয় হয় উন্মুক্ত প্রশ্ন-উত্তর পর্ব। এ পর্বে অংশ নেন আইসিএসবি’র সিনিয়র সদস্য মো. রফিকুল ইসলাম এফসিএমএ, এফসিএস, জাহাঙ্গীর হোসেন মানিক, রাজা মাহমুদুল হক প্রমুখ। এ সময় সদস্যরা জাতীয় রাজস্ব বোর্ডে ইনকাম ট্যাক্স প্র্যাকটিসনার হিসেবে নিজেদের দায়িত্ব পালনের দাবি জোড়ালোভাবে তুলে ধরেন। এছাড়াও উন্নয়ন উপ-কমিটির চেয়ারম্যান, আইসিএসবি’র প্রেসিডেন্ট, মূল্য প্রবন্ধ উপস্থাপনকারীসহ অন্যান্য আলোচকগণ ইনকাম ট্যাক্স প্র্যাকটিসনার হিসেবে সিএ, সিএমএ প্রফেশনের ন্যায় সিএস প্রফেশনকেও সুযোগ দেয়ার অনুরোধ জানান।

সদস্যদের বিভিন্ন প্রশ্নের উত্তর দেন জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের সদস্য (ভ্যাট পলিসি), ব্যারিষ্টার জাহাঙ্গীর হোসেন। তিনি সদস্যদের দাবির যৌক্তিকতার সাথে একাত্বতা প্রকাশ করে তা পূরণের আশ্বাস প্রদান করেন।

ব্যারিষ্টার জাহাঙ্গীর হোসেন বলেন, আমার প্রত্যাশা থাকবে, আইসিএসবি’র সদস্যরা দেশের অর্থনৈতিক উন্নয়নের স্বার্থে এবং পাশকৃত বাজেটের লক্ষ্যমাত্রা অর্জনের জন্য প্রয়োজনীয় ভূমিকা রাখবেন। তিনি বলেন, জনগণের উন্নয়নের জন্য সরকার ট্যাক্স নির্ধারণ করেন। আর করদাতাদের করের টাকার উন্নয়নের ফল ভোগ করেন দেশের জনসাধারণ। তিনি বলেন, আগামীতে করের অঞ্চল বাড়াতে হবে। সেই সাথে বাড়াতে হবে করদাতার সংখ্যা। আর এই কাজে তিনি আইসিএসবি’র সকল সদস্যদের সহযোগিতা করার আহ্বান জানান।

জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের সদস্য (ট্যাক্স পলিসি) পারভেজ ইকবাল সেমিনারে বলেন, বৈশ্বিক পরিবর্তনের সাথে সাথে উন্নয়ন হচ্ছে দেশের অর্থনীতির। উন্নয়নের মহাসড়কে এখন বাংলাদেশ। ব্যবসা-বাণিজ্যের সাথে বৃদ্ধি পাচ্ছে আমাদের রফতানির পণ্য। বাড়ছে জিডিপি’র পরিমাণ। সেই সাথে বাড়ছে আমাদের নতুন নতুন কর্মসংস্থান। আইসিএসবি’র সদস্যরা দেশি-বিদেশী কোম্পানীতে দায়িত্ব পালনের সাথে সাথে দেশের অর্থনৈতিক উন্নয়নে যে ভূমিকা রাখছে-এজন্য তিনি আইসিএসবি’র সকল সদস্যকে অভিনন্দন জানান। তিনি ২০১৭-১৮ বাজেটকে যুগান্তকারী বাজেট উল্লেখ করে বলেন, এই বাজেটের রাজস্ব আদায়ের লক্ষ্যমাত্রা অর্জন করতে হলে খেলাপী ঋণের পরিমাণ কমাতে হবে। আর এজন্য তিনি আইসিএসবি’র সদস্যদের সহযোগিতা কামনা করেন।

ICSB-Sanaullah
বস্তৃতা করছেন আইসিএসবি’র প্রেসিডেন্ট মোহাম্মদ সানাউল্লাহ এফসিএস

আইসিএসবি’র সভাপতি মোহাম্মদ সানাউল্লাহ এফসিএস তাঁর বক্তব্যে বলেন, ইনকাম ট্যাক্স অর্ডিনেন্স-১৯৮৪ এর ৩৭ নং ধারা ১৭৪ (২) এ জাতীয় রাজস্ব বোর্ড যে প্রয়োজনীয় সংশোধনী আকারে বাস্তবায়ন করছেন সে আলোকে আইসিএসবি’র সদস্যরা ইনকাম ট্যাক্স প্র্যাকটিসনার হিসেবে দায়িত্ব পালন করতে পারেন। তিনি আরো বলেন, আইসিএসবি’র সদস্যরা দেশ-বিদেশের বিভিন্ন ব্যাংক, বীমা, লিজিং কোম্পানী, বহুজাতিক কোম্পানীসহ দেশের প্রতিষ্ঠিত কোম্পানীতে কোম্পানী সেক্রেটারিসহ বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ পদে দায়িত্ব পালন করছেন। সেই সাথে প্রতিটি সদস্য দেশের অর্থনৈতিক উন্নয়নে রাখছেন প্রশংসিত ভূমিকা।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে অর্থ ও পরিকল্পনা প্রতিমন্ত্রী এম এ মান্নান বলেন, আইসিএসবি ইনস্টিটিউট ও এর সদস্যদের কর্মকান্ড সত্যি প্রশংসার দাবিদার। তিনি আইসিএসবি’র সকল সদস্যদেরকে অভিনন্দন জানিয়ে বলেন, অর্থনৈতিক উন্নয়নের সাথে সাথে যুক্ত হচ্ছে নতুন, আধুনিক ও চ্যালেঞ্জিং পেশা। দেশের অর্থনৈতিক উন্নয়ন, সভ্য সমাজ ও জাতি গঠনই আমাদের লক্ষ্য। সেই লক্ষ্য পূরণে কাজ করে যাচ্ছে বর্তমান সরকার। তিনি আইসিএসবি’র সদস্যদের ইনকাম ট্যাক্স প্র্যাকটিসনার হিসেবে দায়িত্ব পালনের বিষয়ে আশ্বস্ত করে বলেন, বিষয়টি যত দ্রুত সম্ভব তিনি ব্যবস্থা নিবেন।

হোটেল পূর্বাণীতে আয়োজিত সেমিনারে বক্তৃতার সময় অর্থ প্রতিমন্ত্রী স্মৃতিকাতর হয়ে স্মরণ করেন যে, ১৯৭১ সালের ১ মার্চ যখন পাকিস্তান সরকার ঘোষণা করলো যে, অধিবেশন বসবে না, তখন এই পূর্বানী হোটেলেই আওয়ামী লীগের সভা চলছিল। এবং ঐ সভা থেকে এর প্রতিবাদ করা হয়।

আয়োজক কমিটির পক্ষ ১৫ আগষ্ট জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও তাঁর পরিবারের সদস্য এবং ঐ দিনের শাহাদাৎবরণকারী সকলের প্রতি শ্রদ্ধা জানানোর জন্য এক মিনিট নিবরতা পালন করা হয়।

সবশেষে নন্দ গোপাল চক্রবর্তী এফসিএ, এফসিএস সেমিনারের প্রধান অতিথি, বিশেষ অতিধিদ্বয়, আইসিএসবি’র প্রেসিডেন্ট, পেশাগত উন্নয়ন উপ-কমিটির চেয়ারম্যান, মূল প্রবন্ধ উপস্থাপনকারী এবং আলোচকদের আইসিএসবি’র সকল সদস্যদের পক্ষ থেকে ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন।