হোম বিনোদন ডেসপাসিটোর আরবী সংস্করণ নিয়ে হৈ চৈ

    ডেসপাসিটোর আরবী সংস্করণ নিয়ে হৈ চৈ

    সংবাদটি প্রকাশিত হয়েছে : at 6:55 pm
    680
    0

    [video_embed name=”despadico corporate sangbad”]

    স্প্যানিশ ভাষায় ডেসপাসিটোর মূল গানটি এখন ইউটিউবের ইতিহাসে সবচেয়ে বেশিবার দেখা মিউজিক ভিডিও। দক্ষিণ কোরিয়ার শিল্পী সাই এর গ্যাংনাম স্টাইলের যে রেকর্ড, সেটিকেও ছাড়িয়ে গিয়েছে এটি। কিন্তু আরব বিশ্বে আলোড়ন তুলেছে ডেসপাসিটোর এক আরবী সংস্করণ।

    Spellbit Limited

    ওমানের এক র‍্যাপ সঙ্গীত শিল্পী ডেসপাসিটোর যে আরবী ভার্সান ইউটিউবে ছেড়েছেন, সেটি ইউটিউবে এর মধ্যেই দেখা হয়েছে ২৩ লক্ষ বারের বেশি। ওমানে ছেলেরা বিয়ে করার সময় মেয়ের পরিবারকে যে বিরাট অংকের যৌতুক দিতে হয়, সেই প্রথাকে ব্যঙ্গ বিদ্রুপ করা হয়েছে এই গানটিতে। গানটি ইউটিউবে ছাড়া হয় মাত্র এক সপ্তাহ আগে।স্প্যানিশ ভাষার মূল ডেসপাসিটো ইউটিউবের আগের সব রেকর্ড ভঙ্গ করেছে।

    গানটির শুরুতে দেখা যায় র‍্যাপ দলটির প্রধান শিল্পী মোহাম্মদ আল মুঙ্গী যে মেয়েকে বিয়ে করতে চান তার বাবার কাছে গেছেন। মেয়ের বাবা তখন বলছেন, যে তার মেয়েকে বিয়ে করতে চায় তার অবশ্যই একটা অ্যাপার্টমেন্ট, এবং একটা গাড়ি থাকতে হবে এবং মেয়েকে শাবকা (দামী অলংকার) এবং বড় অংকের যৌতুক দিতে হবে। “এমন শর্ত কেন আপনি জুড়ে দিচ্ছেন, যা আমাদের জন্য বিরাট বোঝা হয়ে দাঁড়াচ্ছে। আপনি কি ভুলে গেছেন আপনাদের সময়ে যৌতুকের অংকটা কত কম ছিল? মোহাম্মদ মুঙ্গী তার গানে প্রশ্ন ছুঁড়ে দিচ্ছেন মেয়ের বাবার দিকে।”

    গানটিতে ওমানের প্রবীন প্রজন্মকে অর্থের পেছনে না ছোটার জন্য উদ্বুদ্ধ করা হয়েছে এবং তাদের ঘরে যে মেয়েরা বিয়ের অপেক্ষায় দিন কাটাচ্ছে তাদেরকে বিয়ে করতে দিতে আহ্বান জানানো হয়েছে।

    আরেক ওমানি শিল্পী মোহাম্মদ আল আডওয়ানি, যিনি হানুদ নামে বেশি পরিচিত, তাকে গাইতে দেখা যায়, “বিয়ে ব্যাপারটাকে একেবারে সহজ রাখুন।” গানের একটা অংশ এরকম, “ছেলেটা মেয়েটাকে চায়, তাদের বিয়ের কথা পাকাপাকি। মেয়ের বাবা-মা সম্মতি দিল। মেয়েটি তার ব্যাগ গোছালো। নতুন বাড়িতে তার আগমন উদযাপন করলো। তাদের বিয়ে হলো। তারা নতুন জীবন শুরু করলো। দেখো, কত সহজ ব্যাপারটা।”

    সোশ্যাল মিডিয়ায় এই ভিডিওটি বেশ ইতিবাচকভাবেই নিয়েছেন বেশিরভাগ মানুষ। যৌতুকের সমস্যাটিকে যে এভাবে তুলে ধরা হয়েছে, এর প্রশংসা করেছেন অনেকে। ওমানের একজন জনপ্রিয় টেলিভিশন উপস্থাপক এটি টুইটারে শেয়ার করে বলেছেন, একটা চমৎকার সৃষ্টিশীল কাজ করেছেন এই দুই শিল্পী।টুইটারে আরেকজন মন্তব্য করেছেন, মেয়ের বাবা-মার আরও বিনয়ী হওয়া উচিত এবং যৌতুকের দাবি কমানো উচিৎ।

    আরব দুনিয়ার দীর্ঘদিনের রীতি হচ্ছে বিয়ের সময় কনের বাবাকে বড় অংকের যৌতুক দিতে হয় বরকে। যৌতুকের এই প্রথা অনেক আরব দেশেই এক সামাজিক সমস্যা। ওমানে অনেক যুবক যৌতুকের অভাবে অবিবাহিত করছেন। ডেসপাসিটোর মূল স্প্যানিশ গানটি গেয়েছেন শিল্পী লুইজ ফনসি। এটি ল্যাটিন আমেরিকার পপ চার্টে এক নম্বরে চলে আসার পর শিল্পী জাস্টিন বিবার এর একটি ইংরেজী সংস্করণ রেকর্ড করেন। সেটিও তুমুল জনপ্রিয়তা পায়।