27 C
Dhaka
অক্টোবর ২৪, ২০২০
Latest BD News – Corporate Sangbad | Online Bangla NewsPaper BD
শেয়ার বাজার

ফেসবুক গ্রুপে শেয়ার কারসাজি, কঠোর ব্যবস্থা নেবে বিএসইসি

নিজস্ব প্রতিবেদক : দেশের প্রধান পুঁজিবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের (ডিএসই) ‘সূচক ৫ হাজার ১৪০ পয়েন্টে যাবে। এটি বাজারের টপ পজিশন। তারপর আবার কারেকশন হবে। ‘আনোয়রা গ্যালভানাইজিং ১২০ টাকা পর্যন্ত হোল্ড করবেন’, ‘মার্কেট এখন ইন্ডিং মুভমেন্টে আছে, কারেকশন শুরু হবে’।

এরকম বিভিন্ন মূল্য সংবেদনশীল তথ্য প্রকাশ এবং গুজব ছড়িয়ে ফেসবুকে শেয়ার কারসাজি করছে বিভিন্ন গ্রুপ। এই গ্রুপগুলোতে ৫ হাজার থেকে ২০ হাজার সদস্যও রয়েছে। তাদের বিভিন্ন গুজবে কান দিয়ে বিনিয়োগকারী ও দেশের পুঁজিবাজার ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে।

পুঁজিবাজার নিয়ন্ত্রক সংস্থা বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জে কমিশন (বিএসইসি) ফেসবুকের মাধ্যমে কারসাজির সঙ্গে জড়িত গ্রুপ ও গ্রুপের এডমিন এবং মডারেটরদের বিরুদ্ধে কঠোর অবস্থানে নেমেছে।

বিএসইসির সূত্র মতে, ফেসবুক ও হোয়াটঅ্যাপসহ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে থাকা পুঁজিবাজার সংশ্লিষ্ট গ্রুপগুলোকে বিশেষ নজর রাখা হচ্ছে। ইতোমধ্যে এসব গ্রুপের একটি তালিকা করা হয়েছে। তার মধ্য থেকে ‘ডিসিশন মেকার গ্রুপ’ এর বিরেুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নিচ্ছে কমিশন।

Decision Maker Group নামের এই পাবলিক গ্রুপে ১২ হাজার সদস্য রয়েছে। গ্রুপটিতে এম তালুকদার ও ডিসিশন মেকার নামে মোট ২ জন অ্যাডমিন রয়েছেন। এছাড়াও তৈমুরসহ অন্য আরও দুইজন সদস্য মডারেটর হিসেবে কাজ করছেন।

নাম না প্রকাশের শর্তে বিএসইসির ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা বলেন, ডিসিশন মেকার নামক আইডির কথোপকথন থেকে বোঝা যায় প্রতি শনিবার রাতে একটা আডেট বক্তব্য লেখা হয়, যেখানে পুঁজিবাজারের ভবিষৎ গতি প্রকৃতি নিয়ে পূর্বানুমানের মাধ্যমে বাজারের স্বাভাবিক গতি-প্রকৃতিকে প্রভাবিত করার চেষ্টা করা হয়। এখানে আকার ইঙ্গিতে বর্তমান সময়ে ডিএসইর ইনডেক্স ৫ হাজার ১৪০ পয়েন্টে যাওয়াকে টপ পজিশন উল্লেখ করে এখন থেকে কারেকশনের সম্ভবনার কথা উল্লেখ করা হয়।এছাড়াও এখানে বিভিন্ন ধরনের সাবধানতা বা সকর্তার কথা উল্লেখ করে সাবস্ক্রাইবারদের মধ্যে আশঙ্কা ছাড়নোর বিষয়টি পরিলক্ষিত হয়েছে।

গত বৃহস্পতিবার (১৭ সেপ্টেম্বর) এই গ্রুপের এডমিন এম তালুকদার ডিএম লিখেন, ‘আনোয়ারাগ্যালভা ওরফে জানোয়ারকে লং টাইমে হোল্ড করার জন্য কয়েকজনকে এই গ্রুপে পরামর্শ দিয়েছিলাম। কিন্তু আজ রাত থেকে আমি হয়তোবা সবসময় থাকবো না। তাই এই স্টকের ট্রায়েলিং স্টপ বলে দিচ্ছি। ট্রায়েলিং স্টপ প্রাইজ ১২০ টাকা। সহজ কথায় যতদিন পর্যন্ত ১২০ টাকার উপরে থাকবে ততদিন হোল্ড করবেন।’

এ ধরনের গ্রুপের এডমিন ও মডারেটরদের আইনের আওতায় এনে গ্রুপগুলোকে দ্রুত বন্ধের বিষয়ে ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে।

 


আরো খবর »

আফতাব অটোসের পর্ষদ সভা আজ

Tanvina

নাভানা সিএনজির পর্ষদ সভা আজ

Tanvina

ওয়ালটন হাইটেকের পর্ষদ সভা আজ

Tanvina