28 C
Dhaka
মে ২৬, ২০২০
Latest BD News – Corporate Sangbad | Online Bangla NewsPaper BD
অর্থ-বাণিজ্য

সরকারি নির্দেশ অমান্য করে ক্যাশ আউট চার্জ নিচ্ছে বিকাশ

কর্পোরেট ডেস্ক : করোনা ভাইরাস মোকাবিলায় ও সাধারণ মানুষের ভোগান্তি এবং খরচ কমাতে বাংলাদেশ ব্যাংক মোবাইল ফাইন্যান্সিয়াল সার্ভিসগুলোকে (এমএফএস) ১,০০০ টাকা ক্যাশ আউটে কোনো চার্জ না নেয়ার নির্দেশনা দিয়েছে। বাংলাদেশ ব্যাংকের এই নির্দেশনাটি মানছে না বিকাশ।

গত ১৯ মার্চ বাংলাদেশ ব্যাংক, প্রতি হাজার টাকা ক্যাশ আউট চার্জ না নেয়ার বিষয়ে একটি নির্দেশনা দিয়েছে। নির্দেশনাটির (গ) ধারায় এমএফএস সেবাগুলোকে বলা হয়েছে, প্রতি হাজার টাকা ক্যাশ আউটে কোনো চার্জ না নেয়ার কথা। অথচ বিকাশ গ্রাহকদের কাছ থেকে ক্যাশ আউট চার্জ নিচ্ছে। বিকাশ মাসে একবার গ্রাহকদের ক্যাশ আউট চার্জের টাকা ক্যাশ ব্যাক দেয়ার কথা বলে এসএমএস দিচ্ছে। যা গ্রাহকদের সাথে প্রতারণার সামিল।

এ ছাড়া বিষয়টি বাংলাদেশ ব্যাংকের নির্দেশনার লঙ্ঘনও। বাংলাদেশ ব্যাংকের নির্দেশনা অমান্য করে এবং দেশের এই সঙ্কটের সময়ও মুনাফা ধরে রাখার জন্য মরিয়া হয়ে উঠেছে বিকাশ।

এ ছাড়া রেগুলেটরি প্রতিষ্ঠান হিসেবে নির্দেশনা বাস্তবায়নের বিষয়টিতে ব্যর্থ হয়েছে বাংলাদেশ ব্যাংক। প্রতি হাজার টাকা ক্যাশ আউট চার্জ নেয়ার বিষয়টি বিকাশের পাঠানো এসএমএসের মাধ্যমে স্বীকারও করেছে প্রতিষ্ঠানটি।

গ্রাহকদের দেয়া একটি এসএমএসে বিকাশ বলছে, ‘আপনি মাসে একবার বিকাশ অ্যাপ কিংবা *২৪৭# ডায়াল করে ৫০ টাকা থেকে ১০০০ টাকা পর্যন্ত ক্যাশ আউট (মাসের প্রথম এই লেনদেনের ক্ষেত্রে) অতিরিক্ত চার্জ ছাড়া করতে পারবেন। তবে ক্যাশ আউট করার সময় চার্জ কাটা হবে। এ ক্ষেত্রে আপনার কেটে নেয়া ক্যাশ আউট চার্জটি পরের দিন আপনার একাউন্টে ফেরত চলে যাবে। এক মাসে আপনি একবারই এই ক্যাশ আউট চার্জটি ফেরত পাবেন।’

সাধারণ মানুষদের অভিযোগ, এই দুর্যোগের সময়ও বিকাশ ক্যাশ আউট চার্জ ২০ টাকা নিচ্ছে। বিকাশের ক্যাশ আউট চার্জ ১৮ টাকা ৫০ পয়সা হলেও এজেন্টরা ২০ টাকা করে ক্যাশ আউট চার্জ নিচ্ছে। এ জন্য এজেন্টরা করোনার কথা বলে অতিরিক্ত টাকা নিচ্ছে।

করোনা ভাইরাস মোকাবিলায় সরকার মানুষের চলাফেরা সীমিত করার জন্য সাধারণ ছুটি ঘোষণা করেছে। এ কারণে অনেকে ঘরে বসে টাকা পাঠানো বা বাসার কাছে টাকা লেনদেন করার জন্য এমএফএস সেবাগুলোকে বেছে নিচ্ছে। এ ছাড়া ওষুধ এবং নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্য কেনার জন্য এসব এমএফএসের পেমেন্ট খুব জরুরি সেবা দিয়ে যাচ্ছে। সে জায়গায় বিকাশের উচ্চহারের ক্যাশ আউট চার্জ ও বাংলাদেশ ব্যাংকের নির্দেশনা না মানার বিষয়টি মরার উপর খাড়ার ঘা এর মত।

বিকাশের সরকারি নির্দেশ অমান্যের বিষয়ে বাংলাদেশ ব্যাংকের একজন ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা নাম প্রকাশ না করার শর্তে বলেন, প্রতি হাজারে ক্যাশ আউট চার্জ না কাটার বিষয়ে বাংলাদেশ ব্যাংকের নির্দেশনাটি অমান্য করছে বিকাশ। এমন মানবিক বিপর্যয়ের সময়ও যদি কোনো প্রতিষ্ঠান একক কর্তৃত্ব ধরে রাখা ও মুনাফা অর্জনকেই প্রধান বলে মনে করে, সেটি অবশ্যই দুঃখজনক।

কর্পোরেট সংবাদ/টিডি


আরো খবর »

আইসিইউ অ্যাম্বুলেন্সে এস আলমের মা ও ছেলেকে ঢাকায় প্রেরণ

উজ্জ্বল

ঝিনাইদহে কমতে শুরু করেছে পেঁয়াজের দাম

উজ্জ্বল

সৌদির সব ব্যাংকনোট ও কয়েন ২০ দিন কোয়ারেন্টাইনে রাখা হবে

Tanvina