26 C
Dhaka
মে ২৮, ২০২০
Latest BD News – Corporate Sangbad | Online Bangla NewsPaper BD
স্বাস্থ্য-লাইফস্টাইল

‘ভ্যাকসিন হিরো ২০১৯’ উদ্যাপন

vacsin-6

গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী গত ২৩ সেপ্টেম্বর টিকাদান কার্যক্রমে বাংলাদেশের অসামান্য সাফল্যের স্বীকৃতি হিসেবে গ্লোবাল অ্যালায়েন্স ফর ভ্যাকসিনস অ্যান্ড ইমিউনাইজেশন (এধার) কর্তৃক ‘ভ্যাকসিন হিরো ২০১৯’ সম্মাননায় ভূষিত হন যা বাংলাদেশের টিকাদান কার্যক্রমের জন্যে অত্যন্ত গৌরবের বিষয়।

সম্মাননা গ্রহণ করে প্রধানমন্ত্রী বলেছিলেন, “এ পুরস্কার আমার না, এটা বাংলাদেশের জনগণকে আমি উৎসর্গ করলাম।” আর এই অর্জনকে স্মরণীয় করে রাখতেই স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের স্বাস্থ্য সেবা বিভাগ আজ বুধবার (৬ নভেম্বর)  রাজধানীর কৃষিবিদ ইনস্টিটিউশন বাংলাদেশ কমপ্লেক্স মিলনায়তনে টিকাদান কর্মসূচির সাথে যুক্ত স্বাস্থ্য বিভাগের কর্মকর্তা-কর্মচারিদের নিয়ে একটি উদ্যাপন অনুষ্ঠান আয়োজন করেছে। উক্ত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের মাননীয় মন্ত্রী জনাব জাহিদ মালেক, এমপি।

অনুষ্ঠানের সভাপতিত্ব করেন স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের স্বাস্থ্য সেবাবিভাগের সচিব জনাব মো. আসাদুলইসলাম। অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন ডা. মো. শামসুল হক, লাইন ডিরেক্টর, এমএনসি অ্যান্ড এএইচ, স্বাস্থ্য অধিদপ্তর।

gavi

অনুষ্ঠানে উন্নয়ন সহযোগী সংস্থা ইউনিসেফ-এর ডেপুটি রিপ্রেজেন্টেটিভভীরা মেনডোনছা এবং বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার রিপ্রেজেন্টেটিভডা. বার্ধন জাং রানা টিকাদানে বাংলাদেশের সাফল্যের বিভিন্ন দিক তুলে ধরেন। বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন ডা. এম. ইকবাল আর্সলান, সভাপতি, স্বাধীনতা চিকিৎসক পরিষদ, ডা. মোস্তফা জালাল মহিউদ্দীন, সভাপতি, বাংলাদেশ মেডিকেল এসোসিয়েশন, কাজী আ. খ. ম. মহিউল ইসলাম, মহাপরিচালক, পরিবার পরিকল্পনা অধিদপ্তর, অধ্যাপক ডা. আবুল কালাম আজাদ, মহাপরিচালক, স্বাস্থ্য অধিদপ্তর, শেখ ইউসুফ হারুন, সচিব, স্বাস্থ্যশিক্ষা ও পরিবার কল্যাণ বিভাগ, স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয় এবং অধ্যাপক ডা. সৈয়দ মোদাচ্ছের আলী, চেয়ারম্যান, কমিউনিটি ক্লিনিক, স্বাস্থ্য সহায়তা ট্রাস্ট।

উক্ত অনুষ্ঠানে বাংলাদেশের স্বাস্থ্যখাতে অব্যাহত সমর্থন ও ভূমিকা রেখে চলায় ভ্যাকসিন অ্যালায়েন্সসহ অন্যান্য অংশীজনদের ধন্যবাদ জানানো হয়। সেই সাথে প্রধানমন্ত্রীর এই প্রাপ্তিকে আগামীর জন্য অনুপ্রেরণা হিসেবে উল্লেখ করে বক্তাগণ ভিশন ২০২১ ও ভিশন ২০৪১ এর মাধ্যমে দেশে সবার জন্য প্রাথমিক স্বাস্থ্যসেবা ও পর্যাপ্ত পুষ্টি নিশ্চিত করার প্রত্যয় ঘোষণা করেন। সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান ও মধ্যাহ্ন ভোজের মধ্য দিয়ে ‘ভ্যাকসিন হিরো ২০১৯’ উদ্যাপনের সমাপ্তি ঘোষণা করা হয়।


আরো খবর »

ইউনাইটেড হাসপাতালে আগুন, ৫ করোনা আক্রান্তের মরদেহ উদ্ধার

*

চট্টগ্রাম প্রেস ক্লাবের সম্পাদকসহ ৬ সাংবাদিক করোনায় আক্রান্ত

উজ্জ্বল

ফ্রান্সে নিষিদ্ধ হলো হাইড্রোক্সিক্লোরোকুইন

Tanvina