হোম কর্পোরেট সংবাদ ২০২০ এর অর্থ আইনে আইসিএসবি‘র সদস্যরা ট্যাক্স প্রাকটিস করার অধিকার পাবেন: এনবিআর...

    ২০২০ এর অর্থ আইনে আইসিএসবি‘র সদস্যরা ট্যাক্স প্রাকটিস করার অধিকার পাবেন: এনবিআর চেয়ারম্যান

    সংবাদটি প্রকাশিত হয়েছে : at 1:40 pm
    906
    0

    কর্পোরেট সংবাদ ডেস্ক: ইন্সটিটিউট অব চার্টার্ড সেক্রেটারিজ অব বাংলাদেশ (আইসিএসবি) ০৬ জুলাই, ২০১৯ শনিবার অর্থ আইন ২০১৯, জাতীয় বাজেট ২০১৯-২০, নতুন ভ্যাট নীতি এবং তার বাস্তবায়ন প্রক্রিয়া শীর্ষক সিপিডি সেমিনার স্যামসন এইচ চৌধুরী সেন্টার, ঢাকা ক্লাব লিমিটেডে আয়োজন করে।

    অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন মোঃ মোশাররফ হোসেন ভূঁইয়া, এনডিসি, সিনিয়র সচিব অভ্যন্তরীণ সম্পদ বিভাগ ও চেয়ারম্যান জাতীয় রাজস্ব বোর্ড (এনবিআর), অর্থ মন্ত্রণালয়, গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার এবং বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, কানন কুমার রায়, সদস্য (ট্যাক্সপলিসি) ও ডঃ আবদুল মান্নান শিকদার, সদস্য (ভ্যাটপলিসি)। এনবিআরের সম্মানিত অতিথি বৃন্দদেরকে আইসিএসবি এবং দেশের অর্থনীতিতে অসামান্য অবদানের জন্য সাদর অভ্যর্থনা জানানো হয়।

    ICSB CPD

    মোহাম্মদ আসাদ উল্লাহ এফসিএস, চেয়ারম্যান, প্রফেশনাল ডেভেলপমেন্ট সাব কমিটি, প্রাক্তন প্রেসিডেন্ট ও কাউন্সিল সদস্য, সিপিডি সেমিনার এর সভাপতিত্ব করেন ও স্বাগত বক্তব্য রাখেন।

    আসাদ উল্লাহ এফসিএস, ১৯৮৪ সালের আয়কর অধ্যাদেশের ১৭৪ ধারা এবং আয়কর বিধি ১৯৮৪ এর ৩৭ নং উল্লেখ করে বলেন যে, চার্টার্ডসেক্রেটারিগণ আইটিপি হিসেবে যোগ্যতা সম্পন্ন। তিনি এসআরও (এসআরও নং: ১৭১-অ্যাক্ট/২০১৯/২৮-ভ্যাট এবং এসআরও নং: ২৩৮-অ্যাক্ট/২০১৯/৭৪-ভ্যাট) প্রদানের জন্য ধন্যবাদ জানান যার ফলে আইসিএসবি‘র সদস্যরা ভ্যাট উপদেষ্টা হিসাবে কাজ করার আইনি ক্ষমতা প্রাপ্ত হয়।

    তিনি আন্তরিক ভাবে প্রত্যাশা করেন যে, এনবিআর এর মাননীয় চেয়ারম্যান প্রয়োজনীয় এসআরও প্রদান করে আইসিএসবি সদস্যদের আয়কর অধ্যাদেশে আইটিপি হিসাবে অন্তর্ভুক্ত করার জন্য ইতিবাচক পদক্ষেপ গ্রহণ করবেন।

    তিনি আরো বলেন, এনবিআর চেয়ারম্যানের গতিশীল, আন্তরিক ও সৎ নেতৃত্বের অধীনে এনবিআর একটি শক্তিশালী প্রতিষ্ঠান হয়ে উঠেছে এবং দেশের অর্থনৈতিক উন্নয়নে অবদান রেখে চলছে।

    প্রধান অতিথি মোঃ মোশাররফ হোসেন ভূঁইয়া চার্টার্ড সেক্রেটারিগণের প্রশংসা করেন, যারা কর্পোরেট সেক্টরে সুশাসন নিশ্চিত করতে নিরলস ভাবে কাজ করছে।

    তিনি রাজস্ব আয় লক্ষ্যমাত্রা অর্জনে প্রত্যেকের সহযোগিতা কামনা করেন যাতে জাতীয় উন্নয়ন এবং এসডিজি অর্জন করা সম্ভব হয়। তিনি বলেন, নতুন সুযোগ নতুন চ্যালেঞ্জ নিয়ে আসে এবং আমরা এক সাথে কাজ করে সব বাধা অতিক্রম করব এবং আমাদের লক্ষ্য অর্জন করব। এনবিআর মনে করে, জাতীয় উন্নয়ন উদ্যোগের জন্য রাজস্ব সংগ্রহে কোম্পানি সেক্রেটারি গনের আরও এগিয়ে আসতে হবে।

    তিনি উল্লেখ করেন যে, বাংলাদেশ বিশ্বের শুল্ক রেয়াত প্রদানকারী দেশের মধ্যে অন্যতম। সহজে বাস্তবায়ন করার জন্য ভ্যাট আইন নমনীয় করা হয়েছে। এনবিআর এর মূল উদ্দেশ্য করদাতার সংখ্যা বৃদ্ধি করে ১ কোটি পর্যন্ত উন্নীত করা ও এর মাধ্যমে রাজস্ব লক্ষমাত্রা অর্জন করা এবং এর জন্য আমরা উপজেলা পর্যন্ত যাওয়ার চিন্তা ভাবনা করছি। তিনি আশ্বস্ত করেন যে, যদি তিনি স্বপদে থাকেন আগামী বাজেটে চার্টার্ড সেক্রেটারিগণ আইটিপি হিসেবে যাতে পেশাগত ভাবে পরিসেবা প্রদান করতে পারেন সে জন্য প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণ করবেন। অবশ্য এজন্য আইসিএসবি এর সংশ্লিষ্ঠ প্রতিনিধিদের আগে ভাগে তার সাথে যোগাযোগ করতে বলেন।

    মোঃ আজিজুর রহমান এফসিএস, কাউন্সিল সদস্য ও চেয়ারম্যান, সেমিনার ও কনফারেন্স সাবকমিটি, আইসিএসবি, মুল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন এবং কানন কুমার রায়, সদস্য (করনীতি) এবং ডঃ আবদুল মান্নান শিকদার, সদস্য (ভ্যাটনীতি) মুলপ্রবন্ধ এর উপর আলোকপাত করেন এবং অধ্যাপক ডঃ ফিরোজ ইকবাল ফারুকী এফসিএস, এফসিসিই, সিইপিএ, সিপিএ মনোনীত আলোচক ছিলেন।

    মোঃ আজিজুর রহমান এফসিএস অর্থ আইন ২০১৯ এর উপর আলোকপাত করেন এবং উল্লেখযোগ্য পরিবর্তন গুলো তুলে ধরেন যে কিভাবে এর প্রভাব ব্যবসা ও বাক্তিগত কর প্রদান কারী দের উপর পড়বে তা বিশ্লেষণ করেন।

    ICSB

    সেমিনারে বিপুল সংখ্যক নবীন-প্রবীণ চার্টার্ড সেক্রেটারীগণ, কর্পোরেট নেতৃবৃন্দ, বাংলাদেশের নেতৃস্থানীয় কর্পোরেট হাউস থেকে নির্বাহীগণ উপস্থিত ছিলেন। পরিশেষে, মোঃ আব্দুল্লাহ আল মামুন এফসিএস আইসিএসবি‘র পক্ষ থেকে সবাইকে ধন্যবাদ জানান। তিনি বলেন, আমাদের কমিটির এই অর্জন আইসিএসবি এর অর্জন, আমাদের সকল সদস্যদের অর্জন। তিনি ভবিষ্যৎ এ আইসিএসবি এর আরো অনেক বড় বড় অর্জনে সবার সম্মিলিত সহযোগিতা আশা করেন।

    প্রোগ্রামের ভিডিও নিউজটি দেখতে ক্লিক করুন

    আরও পড়ুন: অভিজ্ঞ সিএ ও সিএস হতে পারবেন মূসক পরামর্শক