হোম শিরোনাম আলিফ ম্যানুফ্যাকচারিংয়ের ঋণমান দীর্ঘ মেয়াদে ‘এ মাইনাস’

    আলিফ ম্যানুফ্যাকচারিংয়ের ঋণমান দীর্ঘ মেয়াদে ‘এ মাইনাস’

    সংবাদটি প্রকাশিত হয়েছে : at 11:12 am
    71
    0
    alif Grup

    শেয়ারবাজার ডেস্ক: পুঁজিবাজারে তালিকাভূক্ত কোম্পানি বস্ত্র খাতের আলিফ ম্যানুফ্যাকচারিং কোম্পানি লিমিটেডের ঋণমান অবস্থান (ক্রেডিট রেটিং) নির্ণয় করেছে ইমার্জিং ক্রেডিট রেটিং লিমিটেড (ইসিআরএল)। সূত্র: ডিএসই।

    তথ্যমতে, কোম্পানিটি দীর্ঘমেয়াদে রেটিং পেয়েছে ‘এ মাইনাস’ এবং স্বল্প মেয়াদে পেয়েছে ‘এসটি-২’। ৩১ মার্চ ২০১৯ পর্যন্ত অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন ও অন্যান্য প্রাসঙ্গিক তথ্যের আলোকে এ রেটিং সম্পন্ন হয়েছে।

    এদিকে, সপ্তাহের শেষ কার্যদিবস বৃহস্পতিবার কোম্পানিটির শেয়ারদর শূন্য দশমিক ৯৮ শতাংশ বা ১০ পয়সা বেড়ে প্রতিটি সর্বশেষ ১০ টাকা ৩০ পয়সায় হাতবদল হয়, যার সমাপনী দর ছিল ১০ টাকা ২০ পয়সা। ওইদিন কোম্পানিটির এক কোটি ৬১ লাখ ৪১ হাজার টাকার শেয়ার লেনদেন হয়।  দিনজুড়ে ১৫ লাখ ৭৬ হাজার দুটি শেয়ার মোট ৪৫২ বার হাতবদল হয়। ওইদিন শেয়ারদর সর্বনিন্ম ১০ টাকা ২০ পয়সা থেকে সর্বোচ্চ ১৩ টাকা ৪০ পয়সায় হাতবদল হয়। গত এক বছরে কোম্পানির শেয়ারদর ৮ টাকা ৫০ পয়সা থেকে ১৩ টাকা ৪০ পয়সায় ওঠানামা করে।

    ৩০ জুন ২০১৮ সালের সমাপ্ত হিসাববছরে বিনিয়োগকারীদের জন্য ১০ শতাংশ বোনাস লভ্যাংশ দিয়েছে। যা তার আগের বছরে ছিল ১১ শতাংশ নগদ লভ্যাংশ। আলোচিত সময়ে কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে এক টাকা ৭৩ পয়সা এবং শেয়ারপ্রতি সম্পদমূল্য (এনএভি) দাঁড়িয়েছে ১৫ টাকা ১৩ পয়সা।

    ৫০০ কোটি টাকা অনুমোদিত মূলধনের বিপরীতে পরিশোধিত মূলধন ২৪০ কোটি ৬৭ লাখ ৩০ হাজার টাকা। কোম্পানিটির মোট ২৪ কোটি ছয় লাখ ৭৩ হাজার ১৬৯টি শেয়ার রয়েছে। ডিএসইর সর্বশেষ তথ্যমতে, মোট শেয়ারের মধ্যে উদ্যোক্তা ও পরিচালকদের কাছে রয়েছে ৩১ দশমিক ৩৫ শতাংশ শেয়ার, প্রাতিষ্ঠানিক ১৫ দশমিক ৬৬ শতাংশ ও সাধারণ বিনিয়োগকারীর কাছে ৫২ দশমিক ৯৯ শতাংশ শেয়ার।

    উল্লেখ্য, কোম্পানিটি ১৯৯৭ সালে পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত হয়ে বর্তমানে ‘এ’ ক্যাটেগরিতে অবস্থান করছে।

    আরও পড়ুন, সাপ্তাহিক লেনদেনের শীর্ষে রানার অটোমোবাইলস