হোম লীড নিউজ সিলকো ফার্মার লেনদেন শুরু ১৩ জুন

সিলকো ফার্মার লেনদেন শুরু ১৩ জুন

সংবাদটি প্রকাশিত হয়েছে : at 6:40 pm
85
0
SILCO

শেয়ারবাজার ডেস্ক: প্রাথমিক গণপ্রস্তাব (আইপিও) প্রক্রিয়া সম্পন্ন হওয়া সিলকো ফার্মাসিউটিক্যালসের শেয়ার লেনদেন বৃহস্পতিবার (১৩ জুন) থেকে দেশের উভয় পুঁজিবাজারে শুরু হবে। ডিএসই সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

জানা গেছে, কোম্পানিটির আইপিওতে আবেদনকারীদের মধ্যে বরাদ্দ দেয়া শেয়ার ৭ মে শেয়ারহোল্ডারদের বেনিফিশিয়ারি ওনার্স (বিও) হিসাবে জমা হয়েছে।

Spellbit Limited

গত ১০ এপ্রিল সকাল সাড়ে ১০টায় রাজধানীর ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউট মিলনায়তন, রমনা, ঢাকায় সিলকো ফার্মাসিটিক্যাল লিমিটেডের আইপিও লটারির ড্র অনুষ্ঠিত হয়। সিলকো ফার্মার আবেদন সংগ্রহ করা হয় গত ৭ মার্চ থেকে ১৯ মার্চ পর্যন্ত। ওইসময় কোম্পানিটির শেয়ার কেনার জন্য আইপিওতে ৯২৩টি প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগকারী প্রতিষ্ঠান থেকে আবেদন করা হয়েছে। যা সম্প্রতি আইপিও মাধ্যমে টাকা উত্তোলন করা অন্য যেকোন কোম্পানির চেয়ে বেশি। দ্বিতীয় অবস্থানে থাকা নিউ লাইন ক্লোথিংসে ৮২৮টি, তৃতীয় স্থানে থাকা জেনেক্স ইনফোসিসে ৮৪৩টি প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগকারী প্রতিষ্ঠান থেকে আবেদন করা হয়। এরপরে অবস্থানে থাকা এসএস স্টিলে ৮২৮টি, কাট্টালি টেক্সটাইলে ৭৭১টি ও ইন্দো-বাংলা ফার্মাসিউটিক্যালসে ৭৫৭টি প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগকারী প্রতিষ্ঠান থেকে আবেদন করা হয়।

এর আগে, বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন (বিএসইসি) ৬৬৯তম কমিশন সভায় সিলকো ফার্মার আইপিও অনুমোদন করে। সভা শেষে কমিশন জানায়, ওষুধ কোম্পানিটি অভিহিত মূল্য ১০ টাকায় তিন কোটি সাধারণ শেয়ার ইস্যু করবে। প্রতি লটে শেয়ারের সংখ্যা হবে ৫০০। এর মাধ্যমে তারা বাজার থেকে ৩০ কোটি টাকা মূলধন সংগ্রহ করবে।

সিলকো ফার্মার ইস্যু ব্যবস্থাপনার দায়িত্বে রয়েছে ইবিএল ইনভেস্টমেন্টস লিমিটেড, সিটিজেন সিকিউরিটিজ অ্যান্ড ইনভেস্টমেন্ট লিমিটেড ও সিটি ব্যাংক ক্যাপিটাল রিসোর্সেস লিমিটেড।

আইপিওর মাধ্যমে সংগৃহীত অর্থের ৪৮ দশমিক ২২ শতাংশ বা ১৪ কোটি ৪৬ লাখ ৫৫ হাজার টাকা ব্যয় হবে কোম্পানির নতুন কারখানা ভবনের নির্মাণকাজে। এছাড়া যন্ত্রপাতি ক্রয়ে ৩২ দশমিক ৪৫ শতাংশ বা ৯ কোটি ৭৩ লাখ ৫৬ হাজার, ডেলিভারি ভ্যান ক্রয়ে ১২ দশমিক ১০ শতাংশ বা ৩ কোটি ৬৩ লাখ ১০ হাজার ও আইপিওর খরচ বাবদ ৭ দশমিক ২৩ শতাংশ বা ২ কোটি ১৬ লাখ ৭৮ হাজার টাকা ব্যয় করা হবে।

কোম্পানিটির অনুমোদিত মূলধন ১০৫ কোটি টাকা। প্রাক-আইপিও পরিশোধিত মূলধন ৬৪ কোটি ৩৭ লাখ টাকা। আইপিওর মাধ্যমে ৩০ কোটি টাকা সংগ্রহ করা হলে কোম্পানির পরিশোধিত মূলধন দাঁড়াবে ৯৪ কোটি ৩৭ লাখ টাকা।

আরও পড়ুন: সূচকের উত্থানে শেষ হয়েছে লেনদেন