হোম আর্কাইভ চলতি সপ্তাহে তিন কোম্পানির পর্ষদ সভা

চলতি সপ্তাহে তিন কোম্পানির পর্ষদ সভা

সংবাদটি প্রকাশিত হয়েছে : at 10:47 am
159
0
পর্ষদ সভার

শেয়ারবাজার ডেস্ক: চলতি সপ্তাহে অনুষ্ঠিত হবে পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত তিন কোম্পানির পর্ষদ সভা। কোম্পানি তিনটি হলে- আরগন ডেনিমস লিমিটেড, নর্দার্ন জুট ম্যানুফ্যাকচারিং কোম্পানি লিমিটেড ও সোনালী আঁশ ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেড। সূত্র: ডিএসই।

আরগন ডেনিমস: আগামী ১৪ জানুয়ারি বেলা ৩টায় পরিচালনা পর্ষদ সভা অনুষ্ঠিত হবে। সভায় ২০১৮ সালের ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত দ্বিতীয় প্রান্তিকের অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন পর্যালোচনা করা হবে।

Spellbit Limited

৩০ জুন ২০১৮ সমাপ্ত হিসাববছরে ১৫ শতাংশ নগদ লভ্যাংশ দিয়েছে। আলোচিত সময়ে শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে তিন টাকা ১৮ পয়সা এবং শেয়ারপ্রতি সম্পদমূল্য (এনএভি) দাঁড়িয়েছে ২৬ টাকা ৫৬ পয়সা। ওই সময় কর-পরবর্তী মুনাফা করেছে ৩৮ কোটি ১৬ লাখ ২০ হাজার টাকা।

৩০ জুন ২০১৭ পর্যন্ত সমাপ্ত হিসাববছরের নিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন পর্যালোচনা করে কোম্পানিটি সাড়ে ১২ শতাংশ নগদ ও পাঁচ শতাংশ বোনাস লভ্যাংশ দিয়েছে। ওই সময় ইপিএস হয়েছে তিন টাকা ছয় পয়সা এবং এনএভি ছিল ২৫ টাকা ৮০ পয়সা। ওই সময় কর-পরবর্তী মুনাফা করেছে ৩৪ কোটি ৯৭ লাখ ৩০ হাজার টাকা।

কোম্পানির ১৫০ কোটি টাকা অনুমোদিত মূলধনের বিপরীতে পরিশোধিত মূলধন ১১৯ কোটি ৯৭ লাখ ৭০ হাজার টাকা। রিজার্ভের পরিমাণ ১২৫ কোটি ৬১ লাখ ৬০ হাজার টাকা। কোম্পানিটির মোট ১১ কোটি ৯৯ লাখ ৭৭ হাজার ২০০টি শেয়ার রয়েছে। ডিএসইর সর্বশেষ তথ্যমতে, মোট শেয়ারের মধ্যে উদ্যোক্তা ও পরিচালকদের কাছে রয়েছে ৩৭ দশমিক ১৩ শতাংশ, প্রাতিষ্ঠানিক ৩৩ দশমিক ৬১ শতাংশ ও সাধারণ বিনিয়োগকারীর কাছে ২৯ দশমিক ২৬ শতাংশ শেয়ার রয়েছে।

প্রথম প্রান্তিকে (জুলাই-সেপ্টেম্বর, ১৮) ইপিএস হয়েছে ৮১ পয়সা। এটি আগের বছর একই সময় ছিল ৯১ পয়সা। অর্থাৎ ইপিএস কমেছে ১০ পয়সা। ৩০ সেপ্টেম্বর ২০১৮ পর্যন্ত এনএভি হয়েছে ২৭ টাকা ৩৭ পয়সা, যা একই বছরের ৩০ জুন পর্যন্ত ছিল ২৬ টাকা ৫৬ পয়সা। ওই সময় কর-পরবর্তী মুনাফা করেছে ৯ কোটি ৭০ লাখ ৩০ হাজার টাকা

নর্দার্ন জুট ম্যানুফ্যাকচারিং: কোম্পানিটির পর্ষদ সভা আগামী ১৬ জানুয়ারি বেলা ৩টায় অনুষ্ঠিত হবে। সভায় ২০১৮ সালের ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত দ্বিতীয় প্রান্তিকের অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন পর্যালোচনা করা হবে।

৩০ জুন ২০১৮ সমাপ্ত হিসাববছরে কোম্পানিটি বিনিয়োগকারীদের কোনো লভ্যাংশ দেয়নি। আলোচিত সময়ে শেয়ারপ্রতি লোকসান হয়েছে ১৭ টাকা ১৫ পয়সা এবং এনএভি দাঁড়িয়েছে ৫৭ টাকা চার পয়সা। ওই সময় কর-পরবর্তী লোকসান হয়েছে তিন কোটি ৬৭ লাখ ৪০ হাজার টাকা।

৩০ জুন ২০১৭ সমাপ্ত হিসাববছরের নিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন পর্যালোচনা করে ২০ শতাংশ নগদ ও ২০ শতাংশ বোনাস লভ্যাংশ দিয়েছে, যা আগের বছর ছিল পাঁচ শতাংশ নগদ। এ সময়ে কোম্পানিটির ইপিএস হয়েছে পাঁচ টাকা ১৩ পয়সা এবং এনএভি ছিল ৯১ টাকা তিন পয়সা। এটি আগের বছরের একই সময় ছিল যথাক্রমে ৭২ পয়সা ও ৮৫ টাকা ৯৪ পয়সা। ওই সময় কর-পরবর্তী মুনাফা ছিল ৯১ লাখ ৫০ হাজার টাকা, যা আগের বছরের একই সময় ছিল ১২ লাখ ৮০ হাজার টাকা।

কোম্পানির ১০ কোটি টাকা অনুমোদিত মূলধনের বিপরীতে পরিশোধিত মূলধন দুই কোটি ১৪ লাখ ২০ হাজার টাকা। রিজার্ভের পরিমাণ ১০ কোটি সাত লাখ ৬০ হাজার টাকা। ডিএসইর সর্বশেষ তথ্যমতে, কোম্পানির মোট ২১ লাখ ৪২ হাজার শেয়ার রয়েছে। মোট শেয়ারের মধ্যে উদ্যোক্তা ও পরিচালকদের কাছে ১৫ দশমিক ২৭ শতাংশ এবং সাধারণ বিনিয়োগকারীর কাছে রয়েছে বাকি ৮৪ দশমিক ৭৩ শতাংশ শেয়ার। উল্লেখ্য,  কোম্পানিটি ১৯৯৪ সালে পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত হয়ে বর্তমানে ‘জেড’ ক্যাটেগরিতে অবস্থান করছে।

সোনালী আঁশ ইন্ডাস্ট্রিজ: কোম্পানিটির পর্ষদ সভা আগামী ১৩ ডিসেম্বর বিকাল সাড়ে ৪টায় পরিচালনা অনুষ্ঠিত হবে। সভায় ২০১৮ সালের ৩০ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত প্রথম প্রান্তিকের অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন পর্যালোচনা করা হবে।

৩০ জুন ২০১৮ সমাপ্ত হিসাববছরের নিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন পর্যালোচনা করে কোম্পানিটি ১০ শতাংশ নগদ লভ্যাংশ ঘোষণা করেছে। ৩০ জুন ২০১৭ পর্যন্ত সমাপ্ত হিসাববছরের জন্য ১০ শতাংশ নগদ লভ্যাংশ দিয়েছে, যা আগের বছরের সমান। আলোচিত সময়ে কোম্পানিটির ইপিএস ছিল এক টাকা ৬৫ পয়সা ও এনএভি হয়েছিল ২২৫ টাকা ১৯ পয়সা।

কোম্পানিটির ১০ কোটি টাকা অনুমোদিত মূলধনের বিপরীতে পরিশোধিত মূলধন দুই কোটি ৭১ লাখ ২০ হাজার টাকা। রিজার্ভের পরিমাণ ৫৮ কোটি ৩৫ লাখ ৯০ হাজার টাকা। কোম্পানির ২৭ লাখ ১২ হাজার শেয়ার রয়েছে। মোট শেয়ারের মধ্যে উদ্যোক্তা ও পরিচালকদের কাছে ৫২ দশমিক ৪৮ শতাংশ, প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগকারীদের কাছে পাঁচ দশমিক ৬৩ শতাংশ ও সাধারণ বিনিয়োগকারীর কাছে রয়েছে বাকি ৪১ দশমিক ৮৯ শতাংশ শেয়ার। উল্লেখ্য, কোম্পানিটি ১৯৮৫ সালে পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত হয়ে বর্তমানে ‘এ’ ক্যাটেগরিতে অবস্থান করছে।

আরও পড়ুন: সাপ্তাহিক দর বৃদ্ধির শীর্ষে ইউনাইটেড ইন্স্যুরেন্স