হোম অর্থ-বাণিজ্য বেস্ট প্রেজেন্টেড অ্যানুয়াল রিপোর্ট ২০১৭ পুরস্কার পেল ৩১ প্রতিষ্ঠান

বেস্ট প্রেজেন্টেড অ্যানুয়াল রিপোর্ট ২০১৭ পুরস্কার পেল ৩১ প্রতিষ্ঠান

সংবাদটি প্রকাশিত হয়েছে : at 12:59 pm
372
0

শেয়ারবাজার ডেস্ক: সেরা আর্থিক প্রতিবেদন প্রকাশের জন্য ১০টি ক্যাটাগরিতে মোট ৩১ প্রতিষ্ঠানকে ‘বেস্ট প্রেজেন্টেড অ্যানুয়াল রিপোর্ট ২০১৭‘ পুরস্কার দিয়েছে দি ইনস্টিটিউট অব চার্টার্ড অ্যাকাউন্ট্যান্টস অব বাংলাদেশ (আইসিএবি)। এর মধ্যে বেশিরভাগ প্রতিষ্ঠান শেয়ারবাজারে তালিকাভুক্ত রয়েছে।

এছাড়াও অনুষ্ঠানে ১১ প্রতিষ্ঠানকে সার্টিফিকেট অব মেরিট দেওয়া হয়েছে। সম্প্রতি রাজধানীর হোটেল সোনারগাঁওয়ে এক অনুষ্ঠানে বিজয়ীদের হাতে পুরস্কার তুলে দেন অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত।

Spellbit Limited

অনুষ্ঠানে অর্থমন্ত্রী বলেন, বাজেট ব্যবস্থাপনায় অডিট কার্যক্রমের মাধ্যমে স্বচ্ছতা নিশ্চিত করা সম্ভব। এছাড়া স্বচ্ছতা ও জবাবদিহিতা টেকসই উন্নয়নও নিশ্চিত করতে পারে। জীবনের সুখ লাভ অবস্থান বা সম্পদের ওপর নির্ভর করে না। এটি নির্ভর করে মন-মানসিকতার ওপরে। দিন এনে দিন খাওয়া একজন মানুষও সুখ লাভ করতে পারে। সুতরাং স্বচ্ছতা জবাবদিহিতার মাধ্যমে ব্যবসা পরিচালনা করলে অনেক বেশি সুখ লাভ করা যায়।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাণিজ্য সচিব মো. মফিজুল ইসলাম, অর্থ বিভাগের সচিব আব্দুর রউফ তালুকদার, আর্থিক প্রতিষ্ঠান বিভাগের সচিব মো. আসাদুল ইসলাম, কম্পট্রোলার অ্যান্ড অডিটর জেনারেল মোহাম্মদ মুসলিম চৌধুরী ও ফিন্যান্সিয়াল রিপোর্টিং কাউন্সিলের (এফআরসি) চেয়ারম্যান সি কিউ কে মুস্তাক আহমেদ। অনুষ্ঠানে আরো বক্তব্য রাখেন আইসিএবির সভাপতি দেওয়ান নুরুল ইসলাম এফসিএ ও রিভিউ কমিটি ফর পাবলিশড অ্যাকাউন্টন্স অ্যান্ড রিপোর্টসের চেয়ারম্যান মুহাম্মদ ফরহাদ হোসেন এফসিএ।

আইসিএবি জানায়, সাউথ এশিয়ান ফেডারেশন অব অ্যাকাউন্ট্যান্টসের (সাফা) মানদণ্ড মেনে জাতীয় পরিসরে সবচেয়ে ভালো আর্থিক প্রতিবেদনগুলোকে বাছাই করে পুরস্কার দিয়েছে তারা। সাবেক অর্থ সচিব এম মতিউল ইসলামকে প্রধান করে গঠিত নয় সদস্যের জুরি বোর্ডের মাধ্যমে আইসিএবি পুরস্কারপ্রাপ্তদের তালিকা যাচাই-বাছাই করে বিজয়ীদের নাম ঘোষণা করে। জুরি বোর্ডের অন্য সদস্যরা হলেন সাবেক তত্ত্বাবধায়ক সরকারের উপদেষ্টা অধ্যাপক ওয়াহিদউদ্দিন মাহমুদ, রোকিয়া আফজাল রহমান, রাশেদা কে চৌধূরী, বাংলাদেশ ব্যাংকের সাবেক গভর্নর ড. আতিউর রহমান, বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশনের (বিএসইসি) সাবেক চেয়ারম্যান ফারুক আহমেদ সিদ্দিকী, ফিন্যান্সিয়াল এক্সপ্রেসের ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক শহিদুজ্জামান খান, সাবেক কম্পট্রোলার অব অডিটর জেনারেল আহমেদ আতাউল হাকিম ও সেন্টার ফর পলিসি ডায়ালগের সম্মাননীয় ফেলো অধ্যাপক মোস্তাফিজুর রহমান।

প্রতিষ্ঠানগুলো হলো-

ব্যাংকিং খাত:

ব্যাংকিং খাতে সেরা পুরস্কার পেয়েছে ব্যাংক এশিয়া লিমিটেড। দ্বিতীয় ও তৃতীয় পুরস্কার পেয়েছে যথাক্রমে ব্র্যাক ব্যাংক লিমিটেড ও ডাচবাংলা ব্যাংক লিমিটেড। অন্যদিকে মিউচুয়াল ট্রাস্ট ব্যাংক, ইসলামী ব্যাংক বাংলাদেশ ও প্রাইম ব্যাংক সার্টিফিকেট অব মেরিট পুরস্কার পেয়েছে।

আর্থিক খাত:

আর্থিক খাতে প্রথম স্থান অর্জন করেছে আইডিএলসি ফাইন্যান্স লিমিটেড। দ্বিতীয় ও তৃতীয় স্থানে আছৈ যথাক্রমে লংকাবাংলা ফাইন্যান্স ও আইপিডিসি ফাইন্যান্স।

ম্যানুফেকশ্চারিং:

এই খাতে সবার শীর্ষে বৃটিশ আমেরিকান টোব্যাকো বাংলাদেশ লিমিটেড। দ্বিতীয় সেরার পুরস্কার পেয়েছে গ্ল্যাক্সোস্মিথক্লাইন বাংলাদেশ লিমিটেড। যৌথভাবে তৃতীয় পুরস্কার পেয়েছে প্রিমিয়ার সিমেন্ট লিমিটেড ও অরিয়ন ফার্মা লিমিটেড। সার্টিফিকেট অব মেরিট পুরস্কার পেয়েছে আরএকে সিরামিকস লিমিটেড, বিএসআরএম লিমিটেড এবং ম্যারিকো বাংলাদেশ লিমিটেড।

ইন্স্যুরেন্স কোম্পানি:

ইন্স্যুরেন্স খাতে সবার সেরা গ্রীন ডেল্টা ইন্স্যুরেন্স লিমিটেড। দ্বিতীয় ও তৃতীয় স্থানে যথাক্রমে প্রাইম ইন্স্যুরেন্স ও রিলায়েন্স ইন্স্যুরেন্স লিমিটেড।

কমিউনিকেশন ও আইটি:

এই খাতে একমাত্র প্রতিষ্ঠান হিসেবে অ্যাওয়ার্ড পেয়েছে গ্রামীণফোন লিমিটেড।

বেসরকারি সংস্থা (এনজিও):

এনজিও খাতে সেরা বার্ষিক প্রতিবেদনের পুরস্কার পেয়েছে ব্র্যাক। যৌথভাবে দ্বিতীয় পুরস্কার পেয়েছে সাজিদা ফাউন্ডেশন ও উদ্দীপন। তৃতীয় পুরস্কার পেয়েছে ব্যুরো বাংলাদেশ।

কৃষি খাত:

কৃষি খাতে একমাত্র পুরস্কারটি পেয়েছে গোল্ডেন হারভেস্ট এগ্রো ইন্ডাস্ট্রি লিমিটেড।

ইনটিগ্রেটেড রিপোর্টিং:

ইনটিগ্রেটেড রিপোর্টিং ক্রাইটেরিয়াতে শীর্ষ স্থান অর্জন করেছে আইডিএলসি ফাইন্যান্স লিমিটেড। দ্বিতীয় স্থান পেয়েছে ব্র্যাক ব্যাংক লিমিটেড। যৌথভাবে তৃতীয় পুরস্কার পেয়েছে ইসলামী ব্যাংক বাংলাদেশ লিমিটেড ও ব্যাংক এশিয়া লিমিটেড। এছাড়া প্রাইম ব্যাংক লিমিটেড ও মিউচুয়াল ট্রাস্ট ব্যাংক লিমিটেড সার্টিফিকেট অব মেরিট অ্যাওয়ার্ড পেয়েছে।

রাষ্ট্রায়ত্ত প্রতিষ্ঠান:

রাষ্ট্রায়ত্ত খাতের প্রতিষ্ঠানগুলোর মধ্যে সেরা হয়েছে ইনভেস্টমেন্ট করপোরেশন অব বাংলাদেশ (আইসিবি) এর বার্ষিক প্রতিবেদন। দ্বিতীয় ও তৃতীয় হয়েছে যথাক্রমে বাংলাদেশ ইনফ্রাস্ট্রাকচার ফাইন্যান্স ফান্ড লিমিটেড ও ইনফ্রাস্ট্রাকচার ডেভেলপমেন্ট কোম্পানি লিমিটেড।

করপোরেট গভর্ন্যান্স ডিসক্লোজার:

করপোরেট গভর্ন্যান্স ডিসক্লোজারের দিক থেকে সেরা হয়েছে আইডিএলসি ফাইন্যান্স লিমিটেড। দ্বিতীয় হয়েছে লংকাবাংলা ফাইন্যান্স লিমিটেড। তৃতীয় হয়েছে তিনটি প্রতিষ্ঠান। এগুলো হচ্ছে- বৃটিশ আমেরিকান টোব্যাকো বাংলাদেশ লিমিটেড, ব্যাংক এশিয়া লিমিটেড ও গ্রীন ডেল্টা ইন্স্যুরেন্স লিমিটেড। এছাড়া তিনটি প্রতিষ্ঠান সার্টিফিকেট অব মেরিট অ্যাওয়ার্ড পেয়েছে। প্রতিষ্ঠান তিনটি হচ্ছে- ইউনিয়ন ক্যাপিটাল লিমিটেড, প্রাইম ব্যাংক লিমিটেড ও মার্কেন্টাইল ব্যাংক লিমিটেড।

 

আরও পড়ুন: দীর্ঘমেয়াদে ঋণমান ‘এ+’ পেলো আরগন ডেনিমস