হোম আর্কাইভ ভুয়া অ্যাকাউন্টের দৌরাত্ম্য ঠেকাতে স্থায়ী সমাধান দিতে ব্যর্থ ফেসবুক

ভুয়া অ্যাকাউন্টের দৌরাত্ম্য ঠেকাতে স্থায়ী সমাধান দিতে ব্যর্থ ফেসবুক

সংবাদটি প্রকাশিত হয়েছে : at 12:22 pm
59
0
ফেসবুক

তথ্য প্রযুক্তি ডেস্ক: সোস্যাল মিডিয়া জায়ান্ট ফেসবুকের জন্য সময়টা ভালো যাচ্ছে না। এ সাইটের মাধ্যমে ভুয়া সংবাদ ছড়ানো, ব্যবহারকারীদের ক্ষেত্রে বৈষম্যমূলক আচরণ এবং একের পর এক গ্রাহক তথ্য বেহাতের ঘটনা প্রকাশিত হওয়ায় চাপে পড়েছে ফেসবুক। এসবের সঙ্গে বাড়তি জটিলতা সৃষ্টি করছে ক্রমবর্ধমান ভুয়া ফেসবুক অ্যাকাউন্ট ও পেজ। গত কয়েক বছরে একাধিকবার ভুয়া অ্যাকাউন্ট বন্ধে কঠোর হওয়ার সিদ্ধান্তের কথা বলা হলেও এ ধরনের অ্যাকাউন্টের দৌরাত্ম্য ঠেকাতে ব্যর্থ হয়েছে ফেসবুক কর্তৃপক্ষ। ইয়াহু টেকের পক্ষ থেকে এক প্রতিবেদনে এমনটাই জানানো হয়েছে।

বিভিন্ন উদ্যোগ সত্ত্বেও ভুয়া অ্যাকাউন্ট ও পেজের দৌরাত্ম্য কেন ঠেকানো যাচ্ছে না? বলা হচ্ছে, ফেসবুক অ্যাকাউন্ট কিংবা পেজ খুলতে জোরালো কোনো নীতিমালা নেই। তেমন কোনো গুরুত্বপূর্ণ নথিপত্র বাধ্যতামূলকভাবে চাওয়া হয় না। যে কারণে বিখ্যাত ব্যক্তি কিংবা সাধারণ মানুষ যে কেউ তার ব্যবসায় প্রচারণা ও যোগাযোগের জন্য ফেসবুক অ্যাকাউন্ট বা পেজ খুলতে পারছেন। বাস্তবে সোস্যাল মিডিয়া সাইটটিতে এমন কোনো বাধ্যবাধকতা নেই, যার মাধ্যমে কে বা কারা অ্যাকাউন্ট খুলছে তা শনাক্ত করা যায়। ফেসবুক খুব কম ক্ষেত্রেই নতুন অ্যাকাউন্ট বা পেজগুলোর ভেরিফিকেশন করে। পাশাপাশি সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমটি কখনই নিজেদের তথ্য প্রকাশ করে না, যেখান থেকে মানুষ বুঝতে পারবে কোনো একটি অ্যাকাউন্ট বা পেজ ভুয়া হতে পারে।

Spellbit Limited

ভুয়া সংবাদ, ভুয়া অ্যাকাউন্ট ও পেজের পাশাপাশি ব্যবহারকারীদের মানসিক স্বাস্থ্যে নেতিবাচক প্রভাব ফেলছে ফেসবুক। এ নিয়েও প্রতিষ্ঠানটির ওপর আন্তর্জাতিক চাপ বাড়ছে। ফেসবুককে এখন বড় ধরনের নেশার সঙ্গে তুলনা করা হচ্ছে। আসক্ত হয়ে সাইটটির ব্যবহার একাকিত্ব বাড়াচ্ছে। তুলনামূলক কম বয়সীদের মধ্যে উদ্বেগ বাড়াচ্ছে ফেসবুক।

নিজেদের সাইটে অপ্রীতিকর ঘটনা ঠেকাতে ফেসবুক কর্তৃপক্ষের কিছুই কী করার নেই? বিশ্লেষকরা বলছেন, ফেসবুকের ব্যবসায় মডেল এমনই। গত বছর থেকে সাইটটির বিরুদ্ধে সমালোচনা শুরু হয়েছে। বিভিন্ন প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠানের নির্বাহীরা ফেসবুকের ব্যবসা কৌশল নিয়ে সতর্ক করেছিলেন। শুরুতে এসব সমালোচনায় কর্ণপাত করেনি মার্ক জাকারবার্গ পরিচালিত প্রতিষ্ঠানটি। উল্টো সমালোচনা ঠেকাতে ব্যস্ত হয়ে পড়েন ফেসবুকের শীর্ষ কর্মকর্তারা। তবে এখন কঠোর বাস্তবতার সম্মুখীন হতে হচ্ছে ফেসবুককে।

ফেসবুকে ভুয়া সংবাদ, বিদ্বেষপূর্ণ কনটেন্ট ও ঘৃণাত্মক মন্তব্য ছড়াতে সাধারণত পরিচয় গোপন করে খোলা ভুয়া অ্যাকাউন্টগুলো বেশি ব্যবহার হয়। যে কারণে চলতি বছরজুড়ে কয়েক কোটি ভুয়া অ্যাকাউন্ট ও পেজ বন্ধের তথ্য জানিয়েছিল ফেসবুক। তবে এ ধরনের অ্যাকাউন্টের দৌরাত্ম্য ঠেকাতে স্থায়ী কোনো সমাধান এখন পর্যন্ত দিতে পারেনি কর্তৃপক্ষ।

আরও পড়ুন…
অ্যাপল প্রধানের দিনের শুরু গ্রাহকদের ই-মেইল পড়ে
সর্বাধিক বিক্রীত আইফোনের তালিকায় আইফোন এক্সআর