হোম আর্কাইভ নির্বাচনে প্রার্থী হতে চান অর্ধশতাধিক চিকিৎসক

নির্বাচনে প্রার্থী হতে চান অর্ধশতাধিক চিকিৎসক

সংবাদটি প্রকাশিত হয়েছে : at 11:35 am
113
0
Doctor-..

নিজস্ব প্রতিবেদক: বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বিএসএমএমইউ) সাবেক উপাচার্য অধ্যাপক ডা. কামরুল হাসান খান বর্তমানে দায়িত্ব পালন করছেন পেশাজীবী সমন্বয় পরিষদের মহাসচিব হিসেবে। বাংলাদেশ মেডিকেল অ্যাসোসিয়েশন (বিএমএ) ও স্বাধীনতা চিকিৎসক পরিষদের (স্বাচিপ) একাধিক কেন্দ্রীয় পদেও দায়িত্ব পালন করেছেন তিনি। এখন সংসদ নির্বাচনে প্রার্থী হতে চান এ চিকিৎসক। টাঙ্গাইল-৩ (ঘাটাইল) আসনে আওয়ামী লীগের হয়ে মনোনয়নপত্রও তুলেছেন।

গাজীপুর-৩ আসন থেকে বিএনপির প্রার্থী হিসেবে নির্বাচন করতে চান আরেক চিকিৎসক অধ্যাপক ডা. এএসএম রফিকুল ইসলাম বাচ্চু। বিএনপির পেশাজীবী সংগঠন ডক্টরস অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশের (ড্যাব) যুগ্ম মহাসচিব তিনি। দল থেকে মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেছেন তিনিও।

Spellbit Limited

ডা. কামরুল হাসান খান ও ডা. এএসএম রফিকুল ইসলাম বাচ্চুর মতো অর্ধশতাধিক চিকিৎসক আসন্ন জাতীয় সংসদ নির্বাচনে প্রার্থী হতে চাইছেন। তাদের বড় অংশ আওয়ামী লীগ ও বিএনপি থেকে মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেছেন। জাতীয় পার্টির (জাপা) থেকেও মনোনয়নপত্র কিনেছেন উল্লেখযোগ্য সংখ্যক চিকিৎসক।

চিকিৎসা পেশা থেকে কেন জাতীয় সংসদে প্রতিনিধিত্ব করতে চান— এ প্রশ্নের জবাবে সবারই বক্তব্য, চিকিৎসকরা মাঠপর্যায়ে কাজ করার কারণে স্বাস্থ্য খাতের বিভিন্ন সমস্যা, সীমাবদ্ধতা সম্পর্কে জানেন। সংসদ সদস্য নির্বাচিত হলে তারা স্বাস্থ্যনীতি নির্ণয়ে সহায়তা করতে পারবেন। এতে করে দেশের স্বাস্থ্য খাতকে এগিয়ে নেয়া সম্ভব হবে। চিকিৎসাসেবায় অল্পসংখ্যক মানুষের জন্য কাজ করা যায়। কিন্তু নীতি তৈরির কাজ করলে পুরো দেশের স্বাস্থ্য ব্যবস্থার জন্য কাজ করা হবে।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ক্ষমতাসীন দল আওয়ামী লীগের প্রার্থী হতে প্রায় ৪৫ জন চিকিৎসক মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেছেন। পাশাপাশি বিএনপি থেকে মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেছেন প্রায় ১২ জন চিকিৎসক। জাতীয় পার্টি থেকে এবং স্বতন্ত্র প্রার্থী হয়েও মনোনয়নপত্র তুলেছেন বেশ কয়েকজন চিকিৎসক।

কুমিল্লা-৭ (চান্দিনা) আসন থেকে মনোনয়নপত্র নিয়েছেন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক উপাচার্য প্রাণ গোপাল দত্ত। দলীয় মনোনয়নপত্র জমাও দিয়েছেন তিনি। নির্বাচনে অংশ নিতে এলাকায় জনসংযোগ চালিয়ে যাচ্ছেন এ চিকিৎসক।

শিশু হাসপাতালের পরিচালক অধ্যাপক ডা. আবদুল আজিজ সিরাজগঞ্জ-৩ আসন থেকে মনোনয়নপত্র তুলেছেন। এ চিকিৎসক বলেন, মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছি, দল যদি সিলেকশন করে তাহলে নির্বাচনে অংশ নেব। দীর্ঘদিন ধরে ক্লিনিক্যাল সাইডে কাজ করে আসছি। তাই এখন বৃহৎ পরিসরে কিছু করতে চাই। স্বাস্থ্য খাতের নীতি তৈরিতে কিছু কাজ করতে চাই। এছাড়া এলাকার মানুষের জন্য বড় রকমের কাজ করতে চাই। এলাকায় আমার জনপ্রিয়তা সবসময় বেশি। এলাকার মানুষ চায় আমি নির্বাচন করি, তাদের চাওয়ার প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে আমি নির্বাচন করতে চাই। প্রতি ১৫ দিন পরপর এলাকায় হেলথ ক্যাম্প করি, বিনা পয়সায় চিকিৎসা করি। সংসদ সদস্য হলে এসব কাজ আরো বৃহৎ পরিসরে করা যাবে।

পরিচালকের মতো নির্বাচনে অংশ নিতে চাচ্ছেন শিশু হাসপাতালের আরো তিন চিকিৎসক। শিশু হাসপাতালের চিকিৎসক ডা. রেজাউল করিম তুষার মনোনয়নপত্র তুলেছেন ময়মনসিংহ-৪ আসন থেকে। বাগেরহাট-৩ আসন থেকে নির্বাচন করতে চাইছেন ডা. চয়ন বিশ্বাস। চাঁপাইনবাবগঞ্জ-১ আসন থেকে মনোনয়নপত্র নিয়েছেন শিশু হাসপাতালের আরেক চিকিৎসক ডা. আমিনুল ইসলাম।

স্বাচিপ সভাপতি অধ্যাপক ডা. এম ইকবাল আর্সলান নির্বাচন করতে চাইছেন রাজবাড়ী-২ আসন থেকে। সাতক্ষীরা-৩ আসন থেকে মনোনয়নপত্র তুলেছেন সাবেক স্বাস্থ্যমন্ত্রী ও বর্তমান সংসদ সদস্য ডা. আ ফ ম রুহুল হক। স্বাচিপ মহাসচিব ডা. এমএ আজিজ মনোনয়নপত্র তুলেছেন ময়মনসিংহ-৪ আসন থেকে। বিএমএর সভাপতি ডা. মোস্তফা জালাল মহিউদ্দিন মনোনয়নপ্রত্যাশী ঢাকা-৭ আসনের। কিশোরগঞ্জ-২ আসন থেকে মনোনয়নপত্র তুলেছেন স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের সাবেক মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. দীন মোহাম্মদ নুরুল হক। গাজীপুর-৪ আসন থেকে প্রার্থী হতে চান বিএসএমএমইউর উপ-উপাচার্য অধ্যাপক ডা. শহীদুল্লাহ সিকদার।

আওয়ামী লীগের প্রার্থী হতে আরো মনোনয়নপত্র তুলেছেন মৌলভীবাজার-২ আসন থেকে ডা. রোকন উদ্দীন আহমেদ। ডা. মো. জাহাঙ্গীর আলম তুলেছেন টাঙ্গাইল-৮ আসন থেকে। এছাড়া দিনাজপুর-৪ আসন থেকে নির্বাচন করতে চান ডা. আমজাদ হোসেন, সিরাজগঞ্জ-২ আসন থেকে বর্তমান সংসদ সদস্য ডা. হাবিবে মিল্লাত, চাঁদপুর-৪ থেকে ডা. মোস্তফা হোসেন, নরসিংদী-৪ থেকে স্বাচিপের সহসভাপতি ডা. এমএ রউফ সরদার, চট্টগ্রাম-১০ ডবলমুরিং আসন থেকে বর্তমান সংসদ সদস্য ডা. আফসারুল আমীন, চুয়াডাঙ্গা-১ আসন থেকে ডা. মাহবুব হোসেন মেহেদী, চাঁদপুর-৪ থেকে ডা. হারুন অর সাগর, চট্টগ্রাম-১৫ (সাতকানিয়া-লোহাগাড়া) আসন থেকে ডা. আ ম ম মিনহাজুর রহমান।

বিএনপি থেকে যারা নির্বাচন করতে চান তাদের মধ্যে আছেন ড্যাবের মহাসচিব ডা. জেডএম জাহিদ হোসেন। ময়মনসিংহ-৪ আসন থেকে বিএনপির মনোনয়নপত্র তুলেছেন এ চিকিৎসক নেতা। এছাড়া সিলেট-১ আসন থেকে বিএনপির মনোনয়নপত্র তুলেছেন ডা. শাহরিয়ার হোসেন, চট্টগ্রাম-৯ আসন থেকে ডা. সাহাদাৎ হোসেন চৌধুরী, গাজীপুর-৫ আসন থেকে ডা. মাজহারুল ইসলাম ও গাইবান্ধা থেকে ডা. মইনুল হোসেন সাদিক।

বিএনপি থেকে মনোনয়নপ্রত্যাশী চিকিৎসক অধ্যাপক ডা. এএসএম রফিকুল ইসলাম বাচ্চু বলেন, মনোনয়নপত্র তুলেছি। দল যদি মনোনয়ন দেয় তাহলে নির্বাচন করব। আমরা চাই পেশাজীবীরা সংসদে আসুক। সব পেশার মানুষ সংসদে এলে এক ধরনের ভারসাম্য তৈরি হবে। ২০১৪ সাল থেকে আমি এলাকার উন্নয়নে কাজ করছি। এলাকায় ভালো সাড়াও পাচ্ছি।

পিরোজপুর-৩ আসন থেকে মনোনয়নপত্র নিয়েছেন স্বতন্ত্র সংসদ সদস্য ডা. রুস্তম আলী ফরাজী। ওই আসনে আওয়ামী লীগ থেকে আরো দুই চিকিৎসক মনোনয়নপত্র তুলেছেন।

সংসদে প্রতিনিধিত্বের সুযোগ পেলে চিকিৎসকরা স্বাস্থ্য খাতের উন্নয়নে ভূমিকা রাখতে পারবেন বলে মনে করেন বিএসএমএমইউর সাবেক উপাচার্য ও আওয়ামী লীগের মনোনয়নপ্রত্যাশী ডা. কামরুল হাসান খান। তিনি বলেন, আমরা কাজের মধ্য দিয়ে সারা জীবন পেশাজীবী আচরণ করেছি, বড় বড় পদে থেকেছি। একটা অভিজ্ঞতা তো হয়েছে। সে অভিজ্ঞতা আমরা দেশের জন্য, নিজের এলাকার জন্য কাজে লাগাতে চাই। এখন তো বাংলাদেশের ঘুরে দাঁড়ানোর সময়। সেজন্য রাজনীতিতে যোগ্য, অভিজ্ঞ, মেধাবী, দুর্নীতিমুক্ত মানুষের খুবই দরকার। সূত্র: বণিক বার্তা।

আরও পড়ুন: 

ঐক্যফ্রন্টে যোগ দিলেন রেজা কিবরিয়া

কোনো অবস্থাতেই নির্বাচন বয়কট করব না: ড. কামাল