হোম কর্পোরেট সুশাসন বিমাখাতের উন্নয়নে নতুন কৌশলে ‘আইডিআরএ’

বিমাখাতের উন্নয়নে নতুন কৌশলে ‘আইডিআরএ’

সংবাদটি প্রকাশিত হয়েছে : at 7:49 pm
157
0
বিমাখাত
আইডিআরএ অনুষ্ঠিত ত্রৈমাসিক সভা

মাহমুদ: বিমাখাত নিয়ে এদেশের জনগণের মাঝে রয়েছে তিক্ত অভিজ্ঞতা। শেয়ারবাজারে তালিকাভুক্ত বিমা কোম্পানির বিরুদ্ধে অভিযোগের অন্ত নেই সাধারণ বিনিয়োগকারীদের। অনেক ক্ষেত্রে অনিয়মই নিয়ম হয়ে উঠতে দেখা যায় বিমা কোম্পানিগুলোতে। বিমা খাতের শৃঙ্খলা ফিরিয়ে আনতে বিমা উন্নয়ন ও নিয়ন্ত্রণ কর্তৃপক্ষ (আইডিআরএ) নানা রকম নিয়ন্ত্রণমূলক কার্যক্রম নিলেও আশানুরূপ বা দৃশ্যমান কোন ফল পাওয়া যায়নি। যে কারণে, বিমা কোম্পানিগুলোকে নিয়ন্ত্রণের পরিবর্তে এবার উন্নয়নের দিকে বেশি নজর দিচ্ছে আইডিআরএ। সে লক্ষ্যে বিমা কোম্পানিগুলোর কাছ থেকে ব্যবসায়িক তথ্য সংগ্রহ করে তৈরি করা হচ্ছে মূল্যায়ন প্রতিবেদন।

শুধু মূল্যায়ন প্রতিবেদনই না, এর ওপর ভিত্তি করে বিমা কোম্পানির শীর্ষ নির্বাহী ও মালিকদের সাথে নিয়মিত বৈঠক করছেন আইডিআরএ’র শীর্ষ কর্তা ব্যক্তিরা। এসব বৈঠকে তুলে ধরা হচ্ছে কোম্পানিগুলোর ব্যবসায়িক ও আর্থিক অবস্থা। সেই সাথে জবাবদিহিতা নিশ্চিত করতে অসঙ্গতিগুলো চিহ্নিত করে ব্যাখ্যা নেওয়া হচ্ছে কোম্পানিগুলোর কাছ থেকে।

Spellbit Limited

বর্তমানে আইডিআরএ এর পক্ষ থেকে নেওয়া এসব কর্মকান্ডের মধ্যে বেশি গুরুত্ব পাচ্ছে বিমা দাবি পরিশোধ, ব্যবস্থাপনা ব্যয় নিয়ন্ত্রণ, সরকারের রাজস্ব আয় ও কোম্পানিগুলোর আর্থিক ভিত মজবুত করা। এসব কর্মকাণ্ড পরিচালনায় সংস্থাটি একটি গবেষণা সেলও গঠন করেছে।

চলতি বছরে আইডিআরএ প্রথম প্রান্তিক এবং দ্বিতীয় প্রান্তিকে ৪টি সমন্বয় সভা করেছে। এর মধ্যে প্রথম প্রান্তিকের মূল্যায়ন প্রতিবেদন তৈরি করে তা সকল কোম্পোনির কাছে পাঠানো হয়েছে। সেই সাথে বিমা কোম্পানির উন্নয়নের অন্তরায় হিসেবে চিহ্নিত বিষয়ে ব্যাখা নিয়েছে।

অন্য দিকে, দ্বিতীয় প্রান্তিকের ব্যবসায়িক কর্মকাণ্ডের ওপর সমন্বয় সভা হয়েছে। সভায় চিহ্নিত অসঙ্গতি তুলে ধরা হয় এবং এসব অসঙ্গতি থেকে বের হয়ে আসার উপায়গুলো নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা করা হয়েছে। তবে দ্বিতীয় প্রান্তিকের মূল্যায়ন প্রতিবেদন এখনো কোম্পানিগুলোর কাছে পাঠানো হয়নি।

আইডিআরএ বলছে, বিমাখাত নিয়ে জনগণ এবং সাধারণ বিনিয়োগকারীদের মাঝে যে নেতিবাচক মনোভাব তৈরি হয়েছে, তা দূর করে সুষ্ঠ কাজের পরিবেশ সৃষ্টি এবং জনগণের আস্থা ফিরিয়ে আনাই মূল লক্ষ্য।

আশা করা হচ্ছে, আইডিআরএ’র এ ধরণের পদক্ষেপ বিমাখাতের উন্নয়নে দীর্ঘ মেয়াদী প্রভাব রাখবে। এ কর্মকান্ডের ফলে কোম্পানির মালিক ও শীর্ষ নির্বাহীদের মাঝে এর একটি ইতিবাচক প্রভাব পরবে, যা বিমাখাতের উন্নয়নে সহায়ক হিসেবে কার্যকরি ভূমিকা রাখবে।

আরো পড়ুন: জরিমানা থেকে বাঁচতে সময়ের মধ্যেই আয়কর বিবরণী জমা দিন