হোম আর্কাইভ আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনে মনোনয়ন চান শতাধিক ব্যবসায়ী

আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনে মনোনয়ন চান শতাধিক ব্যবসায়ী

সংবাদটি প্রকাশিত হয়েছে : at 12:30 pm
142
0

কর্পোরেট সংবাদ ডেস্ক: আওয়ামী লীগ থেকে শুরু করে বিএনপি, জাতীয় পার্টিসহ আরো কয়েকটি দল থেকে মনোনয়ন পেতে উঠেপড়ে লেগেছেন ব্যবসায়ী নেতারা। শুধু তাই নয়, আসন্ন নির্বাচনকে কেন্দ্র করে দীর্ঘ সময় ধরে নিজ আসনগুলোতে কাজ করে যাচ্ছেন মনোনয়ন প্রত্যাশী ব্যবসায়ীরা। তবে ব্যবসায়ীদের রাজনীতিতে সাধুবাদ জানিয়েছে বিভিন্ন শ্রেণিপেশার মানুষ। বিশেষ করে তরুণ ব্যবসায়ীদের কাজ করার অনেক সুযোগ রয়েছে বলে জানিয়ে অনেকেই।

দেশের বিভিন্ন আর্থিক প্রতিষ্ঠান, ব্যবসায়িক সংগঠনসহ এ খাত সংশ্লিষ্টদের সাথে কথা বলে জানা গেছে, আসন্ন সংসদ নির্বাচনে বর্তমান মন্ত্রী, সাবেক এমপি, দেড় শতাধিক ব্যবসায়ী, বিভিন্ন ব্যাংক, বিমা ও আর্থিক প্রতিষ্ঠানের চেয়ারম্যান ক্ষমতাসীন দলসহ অন্যান্য দলের হয়ে নির্বাচনি টিকিট পাওয়ার জন্য লড়ছে।

Spellbit Limited

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, শাশা গার্মেন্টের সাবেক চেয়ারম্যান, পানিসম্পদমন্ত্রী ও চট্টগ্রাম-৪ আসন থেকে জাতীয় পার্টির মনোনয়নে নির্বাচিত এমপি ব্যারিস্টার আনিসুল ইসলাম মাহমুদ নির্বাচন করবেন। হামিদ ফ্যাশনের এমডি ঢাকা-৩ থেকে নির্বাচিত এমপি, জ্বালানি ও খনিজসম্পদ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ বিপু আবারও নির্বাচনে অংশ নেবেন। ইন্টারস্টপ অ্যাপারেলসের এমডি রাজশাহী-৬ থেকে নির্বাচিত এমপি ও পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলমও নির্বাচনে অংশ নেবেন।

খোঁজ নিয়ে আরো জানা গেছে, দোহার-নবাবগঞ্জ নিয়ে গঠিত ঢাকা-১ আসনে আগামী নির্বাচনে আওয়ামী লীগের প্রার্থী হতে চান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বেসরকারি খাত বিষয়ক উপদেষ্টা এবং এফবিসিসিআইয়ের সাবেক সভাপতি সালমান এফ রহমান। শুধু তাই নয় মনোনয়ন দৌড়ে থেমে নেই ব্যবসায়ীদের শীর্ষ সংগঠন এফবিসিসিআই এর নেতারা। এফবিসিসিআই সূত্র জানিয়েছে, আসন্ন নির্বাচনে এফবিসিসিআই থেকে একাধিক ব্যবসায়ী নেতা মনোনয়ন পেতে দৌড়ঝাঁপ করছেন।

সূত্র জানিয়েছে, কুমিল্লা-২ আসনে (হোমনা-তিতাস) আগামী নির্বাচনে প্রার্থী হিসেবে নৌকার মনোনয়ন প্রত্যাশা করছেন এফবিসিসিআইর সাবেক সভাপতি মাতলুব আহমাদের সহধর্মিণী এবং নিটল-নিলয় গ্রুপের ভাইস চেয়ারম্যান ও বাংলাদেশ উইমেন্স চেম্বার অব কমার্সের সভাপতি সেলিমা আহমাদ।

সেলিমা আহমাদ বলেন, নারীরা এখন আর পিছিয়ে নেই। আগামীর সুন্দর বাংলাদেশের জন্য আমাদের কাজ করার অনেক সুযোগ রয়েছে। সুতরাং আমরা চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছি। শুধু তাই নয়, নোয়াখালী-১ আসন থেকে মনোনয়ন পেতে চান এফবিসিআইর পরিচালক বিশিষ্ট অভিনেত্রী শমী কায়সার প্রার্থী হতে চান।

আগামী নির্বাচনে নরসিংদী-৪ আসনের মনোহরদী-বেলাব এলাকা থেকে নৌকার টিকিট চাইছেন এফবিসিসিআইর সাবেক সহসভাপতি হেলাল উদ্দিন। টাঙ্গাইল-৬ আসনে (নাগরপুর-দেলদুয়ার) নির্বাচন করতে চান ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের (ডিএসই) সাবেক সভাপতি ও সন্ধানী লাইফ ইন্স্যুরেন্সের ব্যবস্থাপনা পরিচালক আহসানুল ইসলাম টিটু।

চুয়াডাঙ্গা-১ আসন থেকে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন প্রত্যাশী স্বনামধন্য জুয়েলারি প্রতিষ্ঠান ডায়মন্ড ওয়ার্ল্ডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক দিলীপ কুমার আগরাওয়াল। তিনি বলেন, তরুণদের ভোটাররা সব চেয়ে বেশি স্বাগত জানাচ্ছে। বিভিন্ন সিটি করপোরেশনে তরুণদের জয় প্রমাণ করে সংসদ নির্বাচনেও তরুণ নেতৃত্ব এগিয়ে থাকবে। তিনি বলেন, ব্যবসায়ীদের আর্থিক দুর্নীতির প্রবণতা কম থাকে। যা দেশের অর্থনৈতিক উন্নয়নে বড় ধরনের অবদান নাখতে পারে।

বরিশাল-৫ (বরিশাল সদর) ও সিটি করপোরেশন এরিয়া নিয়ে গঠিত দক্ষিণবঙ্গের অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ একটি আসন। বিএনপির দূর্গ বলে খ্যাত আসন গতবার ঘাটি গেড়েছে আওয়ামী লীগ। আর এই আসনের লোকদের আস্থা ভরসা তরুণদের উপর। এই আসন থেকে আওয়ামী লীগের মনোনয়নপ্রত্যাশীদের মধ্যে এগিয়ে আছেন আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় উপ কমিটির সদস্য এবং ইলেক্ট্রনিক্স পণ্য আমদানিকারক ব্যবসায়ী মো. আরিফিন মোল্লা। প্রধানমন্ত্রীর নেতৃত্বাধীন সরকারের উন্নয়ন কাজের প্রচারে ব্যাপক গণসংযোগ করছেন। তৃণমূল আওয়ামী লীগ ও অঙ্গ-সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীদের সঙ্গে নিয়ে ভোটারদের দুয়ারে দুয়ারে যাচ্ছেন।

আরিফিন মোল্লা বলেন, দক্ষিণবঙ্গ সর্বদাই আওয়ামীলীগের ঘাটি। দক্ষিণবঙ্গের সিংহপুরুষ আমার রাজনৈতিক গুরু আবুল হাসানাত আবদুল্লাহ এর নেতৃত্বে বরিশাল ৫ আসনে দীর্ঘদিন কাজ করে যাচ্ছি। বঙ্গবন্ধুর আদর্শের সৈনিক হিসেবে জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে আমৃত্যু তাদের কল্যাণে কাজ করে যেতে চাই। জঙ্গি, সন্ত্রাস ও মাদকের বিরুদ্ধে যে লড়াই চলছে, এটি অব্যাহত রাখতে হলে আওয়ামী লীগ ও শেখ হাসিনার বিকল্প নেই। তিনি ক্ষমতায় আছেন বলেই দেশ আজ এগিয়ে যাচ্ছে। এই অর্জন ধরে রাখতে হলে, আবারও বঙ্গবন্ধুকন্যা শেখ হাসিনাকেই ক্ষমতায় আনতে হবে।

আরও পড়ুন: 
‘এ দেশ কোনো মহারাজা-মহারানির নয়: ড. কামাল হোসেন
উন্নয়নে সহযোগিতা করায় জাপাকে প্রধানমন্ত্রীর ধন্যবাদ