হোম আর্কাইভ রাজনীতি থেকে কি হারিয়ে যাচ্ছে সাদেক হোসেন খোকা?

রাজনীতি থেকে কি হারিয়ে যাচ্ছে সাদেক হোসেন খোকা?

সংবাদটি প্রকাশিত হয়েছে : at 11:21 am
1061
0
খোকা
ডেস্ক রিপোর্ট: রাজনীতি থেকে নিজেকে অনেকটাই গুটিয়ে নিয়েছেন বিএনপির এক সময়ের প্রভাবশালী নেতা এবং অবিভক্ত ঢাকা সিটি করপোরেশনের সাবেক মেয়র সাদেক হোসেন খোকা। দীর্ঘদিন বিএনপি কেন্দ্রীয় কমিটির ভাইস চেয়ারম্যান এবং ঢাকা মহানগরের আহ্বায়ক ছিলেন খোকা। মহানগরের শীর্ষপদ ছেড়েছেন কয়েক বছর হলো; দলের স্থায়ী কমিটিতে স্থান পেতে পারেন শোনা গেলেও শেষ পর্যন্ত তা হয়নি।
ঢাকার মেয়র, মহানগর বিএনপির শীর্ষপদ এবং কেন্দ্রীয় কমিটির গুরুত্বপূর্ণ পদে থাকার সুবাদে দলের অভ্যন্তরে যে শক্ত অবস্থান তৈরি হয়েছিল তার, দীর্ঘ অনুপস্থিতিতে তা অনেকটাই নড়বড়ে হয়ে গেছে। দলের হাইকমান্ডসহ মাঠপর্যায়ের নেতাকর্মীদের পরম আস্থাভাজন পরাক্রমশালী সেই খোকা বর্তমানে শারীরিক অসুস্থতা, মামলা, সাজার রায়, বিপুল পরিমাণ সম্পত্তি বাজেয়াপ্ত হওয়া ইত্যাদি কারণে খুবই নাজুক হয়ে পড়েছেন। বিদেশে থেকেও বেশ চিন্তিত দেশের রাজনীতিতে একদা ডাকসাইটে হিসেবে গণ্য এই নেতা।

দলীয় সূত্রে জানা গেছে, যুক্তরাষ্ট্রে যাওয়ার পরও কিছুদিন রাজনৈতিক কর্মকাণ্ডে নেপথ্য থেকে সক্রিয় ভূমিকা রেখেছিলেন সাদেক হোসেন খোকা। কিন্তু দিন দিন তিনি নিষ্ক্রিয় হয়ে পড়েছেন। এখন তিনি এতটাই নিষ্ক্রিয় যে, দলীয় কোনো দায়িত্ব নিতেও রাজি নন। ২০১৪ সালের ২৪ মে উন্নত চিকিৎসার জন্য নিউইয়র্কের উদ্দেশে ঢাকা ছাড়েন খোকা। ওই বছরের জুলাইয়ে তার শরীরে ক্যানসার ধরা পড়ে। চিকিৎসকের পরামর্শে হাসপাতালে ভর্তি হন খোকা।

সাম্প্রতিককালে দলের বেশকিছু গুরুত্বপূর্ণ বিষয়ের দেখভালে খোকাকে দায়িত্ব দিতে চেয়েছিলেন বিএনপির সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমান। কিন্তু খোকা রাজি হননি। যুক্তরাষ্ট্র প্রবাসী বিএনপির নেতাকর্মীদের সঙ্গেও এখন আর তিনি যোগাযোগ রাখছেন না। বর্তমানে তার ক্যানসারের চিকিৎসা চলছে, নিয়মিত ইমুনা থেরাপি নিতে হয়। চিকিৎসকের ক্লিয়ারেন্স ছাড়া দেশে ফেরার চিন্তা করাও সম্ভব নয়।
চিকিৎসার প্রয়োজনে বের হন নতুবা বাসাতেই থাকেন। সেখানে তিনি স্ত্রী, দুই ছেলে ও এক মেয়েকে নিয়ে বসবাস করছেন। যুক্তরাষ্ট্রে যাওয়ার পর প্রথমে উঠেছিলেন নিউইয়র্কে বোনের বাড়িতে। পরে বাসা ভাড়া নেন কুইন্সের ইস্ট এলমহার্স্টে। নিউইয়র্কের বিশ্বখ্যাত ক্যানসার বিশেষায়িত হাসপাতাল মেমোরিয়াল সোয়ান কেটারিংয়ের চিকিৎসক জেমস জে. শিহর তত্ত্বাবধানে চিকিৎসা নিচ্ছেন খোকা।

সূত্র মতে, ক্যানসার আক্রান্ত হওয়ায় খোকা রাজনৈতিক কর্মকাণ্ডে সম্পৃক্ত হতে চাইছেন না জেল-জুলুমের শঙ্কায়। দেশের বর্তমান রাজনৈতিক পরিস্থিতিতে দেশে আসতেও রাজি নন তিনি, বরং যুক্তরাষ্ট্রেই থেকে যেতে চান। ফ্লোরিডায় বাড়ি কিনতেও আগ্রহী। নিউইয়র্কের ভাড়া বাসায় সারাদিন শুয়ে-বসে টিভি দেখে সময় কাটছে তার। খোকার ব্যক্তিগত সহকারী সিদ্দিকুর রহমান মান্নাও নিউইয়র্কে অবস্থান করছেন। মান্নাই বর্তমানে তার দেখাশোনা করছেন।

Spellbit Limited

বেশ কয়েক বছর ধরে শারীরিক অসুস্থতার কারণে এবং মামলার সাজা মাথায় নিয়ে আগামী সংসদ নির্বাচনে তিনি প্রতিদ্বন্দ্বিতা করতে পারবেন কিনা, তা নিয়ে নিজ নির্বাচনী এলাকা পুরান ঢাকার (কোতোয়ালি-সূত্রাপুর) ঢাকা-৬ আসনের নেতাকর্মী ও তার সমর্থকদের মধ্যে রয়েছে ধোঁয়াশা। খোকার অনুগত নেতাকর্মীদের মতে, শেষ পর্যন্ত নিজে নির্বাচন করতে না পারলে খোকা এ আসন থেকে তার ছেলে প্রকৌশলী ইসরাক হোসেনকে নির্বাচনী মাঠে নামাতে পারেন।

২০০৪ সালে অবিভক্ত ঢাকা সিটি করপোরেশনের মেয়র নির্বাচিত হন সাদেক হোসেন খোকা। ২০১১ সালে ঢাকা সিটি উত্তর ও দক্ষিণ এ দুই ভাগে বিভক্ত হওয়ার আগ পর্যন্ত মেয়রের দায়িত্বে ছিলেন তিনি। মেয়রের দায়িত্ব ছাড়ার পর তার বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগ এনে মামলা করে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। এছাড়া ২০১৩-১৪ সালে সরকারবিরোধী আন্দোলনে নাশকতার অভিযোগে বেশ কয়েকটি মামলায় আসামি করা হয় তাকে। ইতোমধ্যে দেশে খোকার বিরুদ্ধে রাষ্ট্রদ্রোহ মামলা হয়েছে। নাশকতার মামলায় তার বিরুদ্ধে জারি হয়েছে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা। সব মিলিয়ে বিভিন্ন থানায় তার বিরুদ্ধে ৩০টির বেশি মামলা আছে বলে জানা গেছে।

এ ছাড়া অবৈধভাবে সম্পদ অর্জনের অভিযোগে ২০১৫ সালের ২০ অক্টোবর খোকার ১৩ বছরের কারাদ- এবং ২ লাখ টাকা জরিমানার রায় দেন ঢাকার বিশেষ জজ আদালত-৩। একই সঙ্গে অবৈধভাবে অর্জিত সম্পদ বাজেয়াপ্ত করে তা দখলেও নেওয়া হয়। দুদকের ওই মামলায় খোকার ছেলে ইসরাক হোসেন ও মেয়ে সারিকা সাদেকের বিরুদ্ধে অভিযোগ আনা হলেও পরবর্তী সময়ে চার্জশিট থেকে তাদের নাম বাদ দেওয়া হয়।
এত শঙ্কা, দ্বিধার পরও খোকার ঘনিষ্ঠজনরা আশা করছেন, সুস্থ হয়ে দেশে ফিরে মামলা-মোকদ্দমা মোকাবিলার পাশাপাশি রাজনীতিতে আগের অবস্থান ফিরিয়ে আনতে সক্ষম হবেন সাদেক হোসেন খোকা। আমাদের সময়।

আরও পড়ুনঃ
সংবিধান অনুযায়ী নির্বাচন হবে: ওবায়দুল কাদের
শেরপুরে স্বেচ্ছাসেবক দলের সভাপতি গ্রেফতার